,


রেবেল মুভি রিভিউ

রেবেল মুভি রিভিউ

রেবেল মুভির রিভিউ পড়ার আগে। রেবেল তেলুগু মুভির অভিনেতা, অভিনত্রী, নির্মাতাসহ সকল কলাকুশলী ও মুক্তি সম্পর্কিত সকল তথ্য নিচের প্রদত্ত লিংক থেকে জেনে আসুন।

রেবেল মুভি

রেবেল সিনেমা সম্পর্কিত তথ্যাদি জানা থাকলে আমাদের রিভিও পড়ে মজা পাবেন এবং আপনি আপনার মতামত আমাদের সাথে শেয়ার করতে পারবেন। আর হ্যা আপনি চাইলে আপনার প্রিয় মুভি বা তারকার সম্পর্কে আপনার মতামত বা রিভিউ লিখে আমাদের পাঠাতে পারেন। তো কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক……

রেবেল মুভি রিভিউঃ ভরপুর অ্যাকশন

  • পার্সোনাল রেটিংঃ ৮/১০
  • রিভিউকারীঃ আরিয়ান

🎬 রেবেল সিনেমার গুরুত্বপূর্ণ তথ্য 🎞

👉 সিনেমার নাম : রেবেল (Rebel)
👉 পরিচালক : রাঘব লরেন্স 😍
👉 তারকা : প্রভাস 😍, তামান্না ভাটিয়া 😍, দীক্ষা শেঠ, কৃষ্ণাম রাজু 😍, কে সি শঙ্কা, মুখেশ ঋষি 😍, আলি ও প্রিয় ব্রহ্মানন্দম 😍
👉 ইন্ডাস্ট্রি : টলিউড
👉 ধরণ : অ্যাকশন
👉 নির্মিত ভাষা : তেলুগু
👉 নির্মাণ ব্যয় আনুমানিক : ৩১ কোটি ভারতীয় রুপি
👉 মুক্তির সাল : ২০১২
👉 সময়কাল : ২ ঘন্টা ৪৮ মিনিট
👉 এখন পর্যন্ত আনুমানিক আয় : ৪৪ কোটি + ভারতীয় রুপি

🎬 রেবেল সিনেমার কাহিনী 📺

গ্যাংস্টার রবার্ট ও স্টেফেনের সহকারী নানুর কন্যা নন্দিনীর সাথে প্রেমের অভিনয় করে, ঋষি তার প্রাক্তন প্রেমিকা দীপালি ও পরিবার সদস্যদের মৃত্যুর প্রতিশোধের ঘটনাকে কেন্দ্র করে নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি।

🎬 রেবেল সিনেমার রেটিং ✴️

👉 গুগল লাইল : ৮২ %
👉 আইএমডিবি রেটিং : ৪.৭/১০
👉 পার্সোনাল রেটিং : ৮ /১০

🎬 রেবেল সিনেমার সম্পর্কে নিজ অনুভূতি ✍️

👉 সিনেমাটি ২০১২ সালে মাল্টি টেলেন্টেড রাঘব লরেন্স স্যার নির্মাণ করেছেন। তিনি আমার প্রিয় নির্মাতাদের মধ্য একজন। শুরুতেই তার সম্পর্কে কিছু বলা নিই। তিনি অনেক গুণের অধিকারী একজন মানুষ। সে নৃত্য পরিচালক হিসেবে ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছেন এবং পরিচিতি লাভ করেছেন। এছাড়া তিনি একধারে অভিনেতা, গল্পকার, চিত্রনাট্যকার, গায়ক, সঙ্গীত পরিচালক ও সিনেমা পরিচালক। তার জনপ্রিয় কাজগুলি হলোঃ মাস (২০০৪), স্টাইল (২০০৬), মুনি বা কাঞ্চানার সিকুয়াল, ডন (২০০৭), রেবেল (২০১২) ও আপকামিং লাক্সমি বোম।

অনেক স্টাইলিশ অ্যাকশন সেই সাথে চিন্নার করা বিজিএম অনেক বেশীই পছন্দের ছিল। সিনেমাটি কয়েকটি ভাষায় ডাব করা হয়েছিল। সিনেমাটি অনেক দর্শকপ্রিয় হয়েছিল। অতপর ২০১৪ আমাদের শাকিব খান ভাই সাহেব হিরো দ্যা সুপারস্টার নামে বাংলা রিমেক করেছিলেন। অ্যাকশন ধাঁচের রেবেল মুভিটি অনেক ভালো লেগেছে।

👉 এবার আসি গল্প প্রসঙ্গে, সিনেমাটির মৌলিক গল্প রাঘব স্যারের নিজের লেখা ছিল। ফলে তার অন্য সকল সিনেমার মতোই ভিন্নতার স্বাদ ছিল। সিনেমাটি গল্পে টান টান একটা উত্তেজনা কাজ করছিল। ফ্ল্যাশ ব্যাক টার্নিং ছিল অনেক স্মুথ ও উপভোগ্য। ফলে গল্প বুঝে উঠতে একটুও কষ্ট হয় নাই। তার গল্প ও চিত্রনাট্যের গুণেই সিনেমাটি এত সুন্দর হয়েছে। এবার যাওয়া যাক অভিনয়ের ব্যাপারে, অভিনয়ই গল্পকে জান দিয়েছে।

👉 অভিনয়ের কথা বলতে গেলে অনেকের কথা বলা লাগবে। কারণ সিনেমাটিতে সবার চরিত্র অনেক গুরুত্বপূর্ণ ও মনোমুগদ্ধকর অভিনয় ছিল।

প্রথমেই প্রভাসকে দিয়ে শুরু করা যাক। এমনিতেই প্রভাস অনেক বেশী প্রিয় তার মধ্যে প্রভাসের ক্ষণিকের নির্বোধ লুক, স্টাইল, ডায়ালগ থ্রো, চরিত্র, এক্সপ্রেশন সবই অনেক পছন্দনীয় ছিল। ঋষি চরিত্র যথার্থভাবে ফুটিয়ে তুলেছিল।

কৃষ্ণাম রাজু স্যার এই বয়সে যে এক্সপ্রেশন, স্টাইল, অ্যাকশন করেছে তা সত্যিই অনেক প্রশংসনীয় ছিল। অপরদিকে আমাদের তামান্না আপার অভিনয় বরাবরের মতোই ছিল। তবে দীক্ষা শেঠের অভিনয় প্রথমবারের মতো দেখে ক্ষণিকের জন্য মনে হয়েছিল ইন্ডাস্ট্রিতে আরও একটা শ্রেয়া সরণ পেলাম।

এবার বলবো সাউথ ইন্ডাস্ট্রির সিনেমার জান ব্রহ্মানন্দম স্যার। যার কমেডি না থাকলে সিনেমায় যেন অপুর্ণতা রয়ে যায়। অপুর্ণতা টুকু পূরণ করতে নারাসা রাজু চরিত্রে হাজির হয়েছিল।

অ্যাকশন সিনেমার প্রাণ যাদের বলা হয়, তারা হলেন ভিলেন। আমরা সবাই জানি অ্যাকশনধর্মী সিনেমার খলনায়ক বা ভিলেনের চরিত্র যত স্ট্রং হবে সিনেমা তত জমে উঠবে। এই সিনেমার বেলায় কথাটা সত্য প্রমাণ করে দিয়েছে। এই সিনেমায় ডেভিড, স্টেফেন ও রবার্ট সব গুলিই ভিলেন চরিত্রই ছিল অনেক পাওয়ারফুল।

👉 রেবেল সিনেমার সাথে যুক্ত সকলে খুবই ভালো কাজ করেছেন। রেবেল অভিনেতা, কলাকুশলী সকলের ক্যারিয়ার টার্নিং মুভি ছিল।

🔏 প্রিয় চরিত্র কোনটি : অবশ্যই, ঋষি। ঋষির লুক, স্টাইল সব কিছু ভালো লেগেছে।

🔏 প্রিয় মুহুর্ত কোনটি : ঋষির প্রাক্তন প্রেমিকা দীপালি ও পরিবার ইন্সিডেন্টের ইমোশনাল মুহুর্ত।

🔏 প্রিয় ডায়ালগ : লেখার ইচ্ছা ছিল কিন্তু তেলুগু না পারায় আর হিন্দী ডাব ভার্সন দিলে অনেকে মজা নিবে ভেবে দিলাম না।

🔏 সিনেমাটি দ্বিতীয় বার দেখার মতো কিনা : অবশ্যই, আমার অনেক ভালো লেগেছে। আমি অনেক বার দেখলেও বিরক্ত হবো না।

🔏 সিনেমাটি আপনাদের দেখতে বলবো কিনা : চাইলে দেখতে পারেন। আশা করছি, খারাপ লাগবে না। যদিও সকলের মুভি নির্বাচনের রুচী এক নয়।

🔏 সিনেমাটির হিন্দী ডাব ও বাংলা সাব আছে কিনা : হিন্দী ডাবিং ও বাংলা সাবটাইটেল আছে। সাব মেকার উজ্জ্বল বস 😍

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: