,


চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের নতুন সময়সূচী ও টিকিটের মূল্য

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের নতুন সময়সূচী ও টিকিটের মূল্য

প্রতিবেদনটি চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের নতুন সময়সূচী ও টিকিটের মূল্য সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নিয়ে সাজানো। আপনি যদি চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনে ভ্রমণ করতে চান তবে এই প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা রুট সম্পর্কে

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা পথের দূরত্ব প্রায় – কিলোমিটার। এই রুটে ইন্টারসিটি, মেইল ট্রেন যাতায়াত করে।

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা কেন ভ্রমন করবেন? 

ট্রেনে ভ্রমণ ব্যয় অন্য পরিবহণের ভ্রমণ ব্যয়ের তুলনায় সস্তা। ফলে সকল শ্রেণীর মানুষ অনায়াসে ট্রেনে ভ্রমণ করতে পারেন। অপরদিকে দীর্ঘ পথ অতিক্রম করার জন্য ট্রেনে অনেক ধরণের সুবিধা থাকে। যা অন্য কোন পরিবহণে থাকে না। অনেকের কাছে স্থল পথে যাত্রার জন্য সেরা পরিবহণ ট্রেন। তাই বলা যায়, – কিমি দীর্ঘ চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা রুটে ট্রেন ভ্রমণই সেরা।তাছাড়া প্রতিদিন হাজার হাজার ভ্রমণকারী ট্রেনে করে চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাতায়াত করে থাকেন ।

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের নতুন সময়সূচী

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা সাধারণত ইন্টারসিটি, মেইল ট্রেন যাত্রা করে থাকে । চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ইন্টারসিটি, মেইল সপ্তাহের প্রতিদিন দিন চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা করে থাকে ।

ট্রেনের ধরন ট্রেনের নাম  ট্রেন নাম্বার  থেকে প্রস্থানের সময়  পর্যন্ত  আগমন সময় বন্ধ
ইন্টারসিটি ট্রেন কপোতক্ষ এক্সপ্রেস ৭১৬ চুয়াডাঙ্গা ১৭:০৩ খুলনা ২০:০০ শনিবার
ইন্টারসিটি ট্রেন সুন্দরবন এক্সপ্রেস ৭২৬ চুয়াডাঙ্গা ১২:৫০ খুলনা ১৫:৪০ বুধবার
ইন্টারসিটি ট্রেন রুপ্সা এক্সপ্রেস ৭২৮ চুয়াডাঙ্গা ১৪:৫৫ খুলনা ১৭:৪০ মঙ্গলবার
ইন্টারসিটি ট্রেন সিমান্ত এক্সপ্রেস ৭৪৮ চুয়াডাঙ্গা ০১:২৪ খুলনা ০৪:১৫
ইন্টারসিটি ট্রেন সাগরদড়ি এক্সপ্রেস ৭৬২ চুয়াডাঙ্গা ০৯:২৯ খুলনা ১২:৪৫ সোমবার
মেইল ট্রেন মহানন্দা এক্সপ্রেস ১৬ চুয়াডাঙ্গা ১১:৪২ খুলনা ১৬:৪০
মেইল ট্রেন রকেট এক্সপ্রেস ২৪ চুয়াডাঙ্গা ১৯:৫৪ খুলনা ২৩:৪৫
মেইল ট্রেন নকশিকাথা এক্সপ্রেস ২৬ চুয়াডাঙ্গা ১৭:৪১ খুলনা ২২:০০

কপোতক্ষ এক্সপ্রেস

কপোতক্ষ এক্সপ্রেস হলো এক ধরনের ইন্টারসিটি ট্রেন। ইন্টারসিটি ট্রেন গুলি সাধারনত মেইল ট্রেন এর থেকে দ্রুত গতি সম্পূর্ণ হয়ে থাকে । কপোতক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেন নাম্বার হলো ৭১৬। কপোতক্ষ এক্সপ্রেস সপ্তাহের এক দিন মাত্র বন্ধ রেখে চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাত্রা করে থাকে ।

সুন্দরবন এক্সপ্রেস

সুন্দরবন এক্সপ্রেস হলো এক ধরনের ইন্টারসিটি ট্রেন। ইন্টারসিটি ট্রেন গুলি সাধারনত মেইল ট্রেন এর থেকে দ্রুত গতি সম্পূর্ণ হয়ে থাকে । সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেন নাম্বার হলো ৭২৬। সুন্দরবন এক্সপ্রেস সপ্তাহের এক দিন মাত্র বন্ধ রেখে চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাত্রা করে থাকে ।

রুপ্সা এক্সপ্রেস

রুপ্সা এক্সপ্রেস হলো এক ধরনের ইন্টারসিটি ট্রেন। ইন্টারসিটি ট্রেন গুলি সাধারনত মেইল ট্রেন এর থেকে দ্রুত গতি সম্পূর্ণ হয়ে থাকে । রুপ্সা এক্সপ্রেস ট্রেন নাম্বার হলো ৭২৮। রুপ্সা এক্সপ্রেস সপ্তাহের এক দিন মাত্র বন্ধ রেখে চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাত্রা করে থাকে ।

সিমান্ত এক্সপ্রেস

সিমান্ত এক্সপ্রেস হলো এক ধরনের ইন্টারসিটি ট্রেন। ইন্টারসিটি ট্রেন গুলি সাধারনত মেইল ট্রেন এর থেকে দ্রুত গতি সম্পূর্ণ হয়ে থাকে । সিমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেন নাম্বার হলো ৭৪৮। সিমান্ত এক্সপ্রেস সপ্তাহের প্রতিদিন চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাত্রা করে থাকে ।

মহানন্দা এক্সপ্রেস

মহানন্দা এক্সপ্রেস হলো এক ধরনের মেইল ট্রেন। মেইল ট্রেন গুলি সাধারনত ইন্টারসিটি ট্রেন এর থেকে ধীর গতি সম্পূর্ণ হয়ে থাকে । মহানন্দা এক্সপ্রেস ট্রেন নাম্বার হলো ১৬। মহানন্দা এক্সপ্রেস সপ্তাহের প্রতিদিন চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাত্রা করে থাকে ।

রকেট এক্সপ্রেস

রকেট এক্সপ্রেস হলো এক ধরনের মেইল ট্রেন। মেইল ট্রেন গুলি সাধারনত ইন্টারসিটি ট্রেন এর থেকে ধীর গতি সম্পূর্ণ হয়ে থাকে । রকেট এক্সপ্রেস ট্রেন নাম্বার হলো ২৪। রকেট এক্সপ্রেস সপ্তাহের প্রতিদিন চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাত্রা করে থাকে ।

নকশিকাথা এক্সপ্রেস

নকশিকাথা এক্সপ্রেস হলো এক ধরনের মেইল ট্রেন। মেইল ট্রেন গুলি সাধারনত ইন্টারসিটি ট্রেন এর থেকে ধীর গতি সম্পূর্ণ হয়ে থাকে । নকশিকাথা এক্সপ্রেস ট্রেন নাম্বার হলো ২৬। নকশিকাথা এক্সপ্রেস সপ্তাহের প্রতিদিন চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাত্রা করে থাকে ।

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের টিকিটের মূল্য

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাতায়াতকারী ইন্টারসিটি ট্রেনের টিকিটের মূল্য মাত্র – টাকা (শোভন চেয়ারের জন্য)। নিচের চার্ট থেকে ট্রেনের টিকিটের মূল্য জেনে নিন। এবার সহজে ষ্টেশন থেকে অথবা অনলাইনে টিকিট ক্রয় করুন। একইসাথে কিভাবে অনলাইনে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করতে হয় সেই সম্পর্কে জানতে প্রতিবেদনটি শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

সিটের ধরন পাসপোর্ট  ভিসা টিকিট মূল্য (টাকা)
শোভন না না
শোভন চেয়ার না না
এসি না না
এসি চেয়ার না না

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের টিকিট ক্রয়

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা যাত্রীগণ অনলাইনের মাধমে ট্রেনের টিকিট ক্রয় করতে পারেন। আবার চুয়াডাঙ্গা ষ্টেশনে গিয়ে সেখান থেকে সরাসরি টিকিট ক্রয় করতে পারবেন। নিচে চুয়াডাঙ্গা থেকে রাজশাহী ট্রেনের টিকিট ক্রয়ের পদ্ধতি দুটি আলোচনা করা হলো।

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা অনলাইন টিকিট বুকিং

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের অনলাইন টিকিট বুকিং করার জন্য আপনাকে বাংলাদেশ রেলওয়ে এর ওয়েব সাইটি ভিজিট করতে হবে ।

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের অনলাইন টিকিট কেনা সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য 

  • যাত্রী (আপনি) যাত্রার ১০ দিন আগে টিকিট কিনতে পারবেন ।
  • ক্রেডিট এবং ডেবিট কার্ড, ডিবিবিএল মোবাইল ব্যাংকিং, বিকাশ এর মাধ্যমে পেমেন্ট করতে পারবেন ।
  • বাংলাদেশ ট্রেনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি esheba.cbsbd.com 
  • ই-টিকিট প্রিন্টের তথ্য দেখিয়ে যে কোনও সময় ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন ।
  • ভ্রমণের কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে টিকিট সংগ্রহ করার পরামর্শ আপনাদের জন্য ।
  • আপনি অনলাইন সিট নিজের মত করে পছন্দ করতে পারবেন।

চুয়াডাঙ্গা ট্রেন স্টেশন থেকে টিকিট ক্রয়

  • টিকিট ক্রয় করার ১/২ দিন পূর্বে অথবা সর্বচ্চো ১০ দিন পূর্বে খুলনা ট্রেন স্টেশন থেকে টিকিট ক্রয় করতে পারবেন ।
  • টিকিট ক্রয় করার জন্য স্টেশনের টিকিট কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করতে হবে ।
  • সাবধানতার সাথে টিকিট টি রাখতে হবে।

চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেন যাত্রায় মন্তব্য

আপনি এখন চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ট্রেনের নতুন সময়সূচী ও টিকিটের মূল্য তালিকা সম্পর্কে জেনে, চুয়াডাঙ্গা থেকে খুলনা ইন্টারসিটি, মেইল দিয়ে যাতায়াত করতে পারবেন। আপনার যদি কোনও প্রশ্ন থাকে তবে একটি কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন। আশা করি, এই নিবন্ধটি আপনার জন্য সহায়ক ছিল। ধন্যবাদ ।

 

চুয়াডাঙ্গা থেকে ছেড়ে যাওয়া সকল ট্রেনের সময়সূচী জানতে ক্লিক করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: