,


মনপুরা দ্বীপ

মনপুরা দ্বীপ ভ্রমণ গাইড

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি মনপুরা দ্বীপ কে ঘিরে। মনপুরা দ্বীপ কোথায় অবস্থিত, মনপুরা দ্বীপ এর ইতিহাস, কেন যাবেন মনপুরা দ্বীপে, কিভাবে যাবেন, কোথায় থাকবেন এ নিয়ে আমাদের প্রতিবেদন টি সাজানো হয়েছে। আশা করি, আমাদের মূল্যবান প্রতিবেদনটি পড়ে আপনারা উপকৃত হবেন।

মনপুরা দ্বীপ কোথায়?

বিভাগ জেলা উপজেলা ইউনিয়ন
বরিশাল  ভোলা মনপুরা

মনপুরা দ্বীপ সম্পর্কে কতটুকু জানেন?

প্রাকৃতির অপরুপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি মনপুরা হচ্ছে ভোলা দ্বীপ থেকে প্রায় ৮০ কিঃ মিঃ দুরত্বে সাগরের বুকে নয়নাভিরাম দ্বীপ। মনগাজী নামে এখানকার এক লোক একদা বাঘের আক্রমনে নিহত হন। তার নামানুসারে মনপুরা নামকরন করা হয়।

বঙ্গোপসাগরের কোল ঘেঁষে মেঘনার মোহনায় ৪টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত মনপুরা উপজেলায় লক্ষাধিক লোকের বসবাস। মিয়া জমিরশাহ’র স্মৃতি বিজড়িত মনপুরা দ্বীপ অতি প্রাচীন। একসময় এ দ্বীপে পর্তুগীজদের আস্তানা ছিল। তারই নিদর্শন হিসেবে দেখতে পাওয়া যায় লম্বা লোমওয়ালা কুকুর। বর্তমানে দ্বীপটি ভূমি ক্ষয়ের উচ্চ হুমকি রয়েছে। ১৯৭৩ থেকে ২১০ পর্যন্ত করা গবেষণাগুলিতে ভূমি ক্ষয়ের প্রমাণ দেখা যায়।

মনপুরা দ্বীপের বর্তমান অবস্থা ?

বাংলাদেশের বৃহওম দ্বীপ ভোলা জেলার মূল ভুখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা মনপুরা। মেঘনার কোল ঘেসে জেগে ওঠা তিন দিকে মেঘনা আর একদিকে বঙ্গোপসাগর বেষ্টিত অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরুপ সাজে সজ্জিত লীলাভূমি মনপুরা। ভোলা জেলা সদর থেকে ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ পূর্ব দিকে বঙ্গোপসাগরের কোলঘেষে মেঘনার মোহনায় চারটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত মনপুরা উপজেলা। মনপুরা সদর থেকে দুই কিলোমিটার উত্তর-পূর্ব পাশে গড়ে উঠেছে মনপুরা ফিশারিজ লিঃ।

মনপুরা দ্বীপে কেন যাবেন ?

ভ্রমন পিপাসু মানুষ দের কে যদি এই কথা জিজ্ঞাসা করা হয়, তবে তারা এই কথা অহেতু হাসির ছলে উড়িয়ে দিবে । কারন, ভ্রমন পিপাসু মানুষদের কাছে এই কথা মূল্যহীন । তবুও বলি,

ছোট বড় ১০টি চর ও বনবিভাগের প্রচেষ্টায় গড়ে উঠেছে সবুজ বিপ্লব। মাইলের পর মাইল সবুজ বৃক্ষরাজি বিশাল মনপুরাকে সাজিয়েছে সবুজের সমারোহে। শীত মৌসুমে শত শত পাখির কলকাকলিতে মুখরিত থাকে। এই চরগুলো হলো-

  • চরতাজাম্মুল,
  • চর পাতালিয়া,
  • চর পিয়াল,
  • চরনিজাম,
  • চর সামসুউদ্দিন,
  • লালচর,
  • ডাল চর,
  • কলাতলীর চর ইত্যাদি।

কিভাবে মনপুরা দ্বীপে যাবেন ?

যে কোন স্থান হতে বাস যোগে, ট্রেন যোগে ও বিমানের মাধ্যমে বরিশাল যেতে পারেন। তারপর পিরোজপুর হতে বিবিচিনি শাহী মসজিদে যাওয়ার উপায় নিচে উল্লেখ করা হলোঃ

বরিশাল বাস টার্মিনাল থেকে মনপুরা দ্বীপে

বরিশাল জেলা বাস স্ট্যান্ড থেকে বাস, মাইক্রোবাস, সিএনজি, ইজিবাইক/ অটোরিক্সা যোগে মনপুরা দ্বীপে যাওয়া যায়। গাড়ি থেকে নেমেই রাস্তার পাশে মনপুরা দ্বীপে দেখা যায়।

মনপুরা দ্বীপে থাকবেন কোথায়?

দেশের নানা প্রান্ত থেকে মনপুরা দ্বীপে ভ্রমনে ভ্রমনযাত্রী আসতে পারে, যাদের একদিনের মধ্যে ভ্রমন করে আবার বাড়ি ফিরে যাওয়া সম্ভবপর হয়ে ওঠেনা । তাই আপনার ভ্রমনে চিন্তা কোনো প্রকার না আসে সে জন্য ক্ষুদ্র প্রয়াসে বরগুনা, ভোলা, মনপুরা উপজেলার আশে পাশের কিছু হোটেলের নাম তুলে ধরছি । যেখানে, আপনি সেফলি থাকতে পারবেন । ম্যাপে মনপুরা উপজেলার আশে পাশের কিছু হোটেলের নাম ও তাদের খরচ সম্পর্কে দেওয়া হলো,

মনপুরা দ্বীপ কে নিয়ে আমাদের প্রতিবেদনটি আশা করি আপনাদের ভালও লেগেছে । আমাদের প্রতিবেদনটি আপনাদের কেমন লাগলো তা আমাদের কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না । পরিশেষে, ধন্যবাদ আমাদের প্রতিবেদনটি পড়ার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: