,


১৬ বছর নিখোঁজ থাকার পর...
১৬ বছর নিখোঁজ থাকার পর...

১৬ বছর নিখোঁজ থাকার পর…

ডেস্ক রিপোর্টারঃ ১৬ বছরেরও বেশি সময় ধরে নিখোঁজ ছিলেন তিনি। দেং শিপিং নামের ওই শিক্ষক যে বিদ্যালয়ে ছিলেন, খোঁড়াখুঁড়ির সময় এই বিদ্যালয়ের মাটির নিচ থেকে উঠে এসেছে তাঁর দেহাবশেষ। গত বৃহস্পতিবার চীনের হুয়াইহুয়া শহরে এ ঘটনা ঘটে।

বিদ্যালয়ে খেলাধুলার একটি স্থাপনা নাজুকভাবে তৈরি হয়েছে বলে সন্দেহ হয়েছিল দেং শিপিংয়ের। তাই এটি অনুমোদন করেননি তিনি। এ কারণেই তাঁকে হত্যা করা হয় বলে সন্দেহ পুলিশের।

পুলিশ বলছে, নির্মাণকাজে জড়িত এক ব্যক্তি দেংকে হত্যা করে মাটিতে পুঁতে ফেলার কথা স্বীকার করেছেন। ২০০৩ সালের জানুয়ারি মাসে এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ জানায়। এই হত্যায় জড়িত সন্দেহভাজন ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।

বিবিসি অনলাইনের খবরে জানানো হয়, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার চীনের শিংহুয়াং মিডল স্কুলের ভেতর দেংয়ের মরদেহ পাওয়া যায়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ফুটেজে দেখা গেছে, বিদ্যালয়ের ওই অংশ ঘিরে রেখেছেন তদন্ত কর্মকর্তারা।

দেংয়ের ছেলে স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেন, তাঁর বাবাকে ওই স্কুলে খেলার জায়গা আছে কি না, তার তদারকির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। দেং স্কুলের খেলার জায়গার নির্মাণকাজে জড়িত দু সাওপিং নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ করেন। চীনের হংশিং নিউজকে দেংয়ের ছেলে বলেন, খেলার জায়গার নির্মাণকাজে অধ্যক্ষের আত্মীয়স্বজন জড়িত ছিলেন। দেং নির্মাণকাজের গুণগত মান নিয়ে অভিযোগ করেন। তিনি নির্মাণকাজ চালিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়ায় সই করতে রাজি হননি। কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান। পরে তিনি নিখোঁজ হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: