,


স্থগিত হলো সেই সরকারি হাসপাতালে বিদেশি ডাক্তার আনার সিদ্ধান্ত
স্থগিত হলো সেই সরকারি হাসপাতালে বিদেশি ডাক্তার আনার সিদ্ধান্ত

স্থগিত হলো সেই সরকারি হাসপাতালে বিদেশি ডাক্তার আনার সিদ্ধান্ত

ডেস্ক রিপোর্টারঃ বাংলাদেশি চিকিৎসকদের প্রতিবাদের মুখে উত্তরায় অবস্থিত কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালে বিদেশি চিকিৎসকদের চিকিৎসা দেওয়ার অনুমতি স্থগিত করেছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি)। এ বিষয়ে হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ককে বিএমডিসি’র রেজিস্ট্রারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

বুধবার (১৯ জুন) বিএমডিসি’র রেজিস্ট্রার ডা. জাহিদুল হক বসুনিয়া কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বরাবর এই স্থগিতাদেশ দিয়েছেন। এ চিঠির অনুলিপি স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালককেও দেওয়া হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের ইস্যু করা চিঠির মাধ্যমে যেসব বিদেশি চিকিৎসকগদের চিকিৎসা দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল, তা স্থগিত করা হলো। এ বিষয়ে কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ককে জরুরিভিত্তিতে বিএমডিসি’র রেজিস্ট্রারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে অবহিত করা হচ্ছে।

এর আগে ভারতের তিনজন চিকিৎসক কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেবেন মর্মে বিজ্ঞাপন দেয়া হয়েছিল। এর প্রতিবাদ করে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আশ্রাফুল হক সিয়াম বিএমডিসির কাছে তাদের প্রবেশ ঠেকাতে আবেদন করেন। পরবর্তীতে দ্রুত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিশেষ করে চিকিৎসকদের মাঝে ভাইরাল হয়ে যায়।

জানতে চাইলে ডা. আশ্রাফ হক বলেন, আমরাও দেশের বাইরে বিভিন্ন সেমিনারে যোগ দেই, লেকচার থাকে। আমরা কিন্তু তাদের দেশে চাকরি করতে পারব না। প্রযুক্তি হয়তো আনা যায়, প্রশিক্ষণও লেনদেন হয়। কিন্তু বিদেশি একটি প্রাইভেট হাসপাতালের ব্যানারে দেশের একটি সরকারি হাসপাতালের বহির্বিভাগে রোগী দেখা হবে, এই বিষয়টি আমাদের বোধগম্য নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: