,


সিলেটে আ.লীগের পরাজয় এমনি এমনি হয়নি : কাদের 1

সিলেটে আ.লীগের পরাজয় এমনি এমনি হয়নি : কাদের

একটি বাংলাদেশ ডেস্কঃ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সিলেট সিটি কর্পোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে যারা দলের বিরুদ্ধে আত্মবিনাশী কাজ করেছেন তাদের রেহাই নেই। যারাই দলের বিরুদ্ধে কাজ করেছেন তদন্তে প্রমাণ হলেই তাদের উপযুক্ত শাস্তি পেতে হবে। আমি সিলেটে কেবল শোকসভায় ভাষণ দিতে আসি নাই। সিসিক নির্বাচন নিয়ে যে সকল অভিযোগ উঠেছে সেগুলোকে খতয়ে দেখতেও এসেছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অভিযোগগুলো খতিয়ে দেখে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে নগরে রেজিস্টারি মাঠে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, সিলেট সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পরাজয় এমনি এমনি হয়নি। দলের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা বিশ্বাস ঘাতকরাই সিদ্ধান্ত নিয়ে নৌকাকে ডুবিয়েছে। এ নিয়ে কেন্দ্রে অনেক অভিযোগ পড়েছে। এসব অভিযোগ খতিয়ে দেখতেই আমরা সিলেটে এসেছি। কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমানিত হলে তাকে শাস্তি পেতে হবে।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের দাবি আওয়ামী লীগ করছে সঙ্গত কারণেই। ইভিএমের মাধ্যমে দ্রুত ভোটিং করা যায়। আবার ভোট কাউন্টিং ও ফল দ্রুত পাওয়া যায়। ইভিএমের মাধ্যমে কেউ জাল ভোটও দিতে পারে না।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশন (ইসি) বিগত সিটি নির্বাচনে কয়েকটি সিটিতে পরীক্ষামূলকভাবে ইভিএম ব্যবহার করে এ সফলতা পেয়েছে। সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনেও দুটি কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করে ইসি। এখানে দুটি কেন্দ্রে দ্রুত ফল পাওয়া গেছে। এ দুটি কেন্দ্রেই বিএনপির প্রার্থী জিতে গেছে। আমরা হেরে গেছি। তারপরও কেন ইভিএমে বিএনপির এত ভয়। আসলে বিএনপি তথ্য প্রযুক্তিতে দেশ এগিয়ে যাক ও নির্বাচন সহজ হোক তারা তা চায় না। বিএনপি ২০০১ সালের মতো ষড়যন্ত্র করে আবার ক্ষমতায় যাওয়ার দিবা স্বপ্ন দেখছে।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সভাপতিত্বে ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরীর পরিচালনায় শোক সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি, জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, এনামুল হক শামিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি ও সদস্য অধ্যাপক রফিকুর রহমান।

এছাড়াও বক্তব্য দেন সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমদ, সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবং জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: