,


সরকারী হলো বেলকুচি কলেজ আনন্দে উল্লাসে ভাসছে শিক্ষক শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী

সরকারী হলো বেলকুচি কলেজ আনন্দে উল্লাসে ভাসছে শিক্ষক শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী

বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ  সিরাজগঞ্জের তাঁত শিল্পে সমৃদ্ধ বেলকুচি উপজেলার অতি প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বেলকুচি কলেজটি সরকারী করা হয়েছে। গতমাসে শিক্ষামন্ত্রনালয়ের জারি করা প্রজ্ঞাপনে এ ঘোষনা পত্র প্রকাশ হয়। ১৯৭০ সালে তৎকালীন সমাজ সেবক আবু কোরাইশী খাঁন সহ বেলকুচির সর্বস্তরের মানুষ উচ্চ শিক্ষার জন্য বেলকুচির মুকুন্দগাঁতী মৌজাতে কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন।

তখন কলেজের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি হন সিরাজগঞ্জ মহুকুমা প্রশাসক শহীদ এ কে এম শামসুদ্দিন। সত্তর দশকের গোড়া থেকে উত্তর জনপদের পিছিয়ে পড়া অশিক্ষিত জনগোষ্ঠীর মধ্যে এই কলেজটিই উচ্চ শিক্ষার আলো ছড়ানো শুরু করে। সে সময় এ অঞ্চলে শিক্ষা বিস্তারের একমাত্র বিদ্যাপীঠ হিসেবে স্বীকৃত বেলকুচি কলেজ।

স্বাধীনতার পর অনেক প্রতিকুলতার মধ্যে দিয়ে কলেজটিকে টিকিয়ে রাখেন পরিচালনা পরিষদের সদস্য বৃন্দ ও শিক্ষক মন্ডলী।

সরকারী হলো বেলকুচি কলেজ আনন্দে উল্লাসে ভাসছে শিক্ষক শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী

শিক্ষকদের অক্লান্ত পরিশ্রমে তিল তিল করে গড়ে তোলেন এই কলেটিকে আর উচ্চ শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেন পুরো বেলকুচি উপজেলা ও এনায়েতপুর অঞ্চলের শিক্ষার্থীদের মাঝে। কলেজটি সরকারি করণের জন্য বেলকুচি এনায়েতপুর বাসীর পাশাপাশি শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের দাবী ছিলো দীর্ঘ দিনের।

ঈদের ছুটির পর কলেজটি খোলার সাথে সাথে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সরকারীকরণের খবরটি ছড়িয়ে পরলে প্রায় ৫ হাজার শিক্ষার্থী ও ৬৬ জন শিক্ষক কর্মচারীর সহ এলাকাবাসীর মাঝে আদন্দের বন্যা বইতে শুরু করে। মিষ্টি মুখ আর প্রাণ ভরা উল্লাসে ভাসছে কলেজের পুরো প্রাঙ্গন।

কলেজের অধ্যাক্ষ মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রচেষ্টার পর স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ আব্দুল মজিদ মন্ডলের সহযোগীতায় কলেজটি সরকারীকরণ সম্ভব হয়েছে। তাই দেশরত্ন মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি । সেই সাথে এই কলেজের প্রতিষ্ঠার পিছনে যাদের অবদান রাজনীতিবিদ, প্রশাসন ও এলাকাবাসী সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই।

এদের মধ্যে যারা মারাগেছেন তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি আর যারা বেঁচে আছেন তাদের দীর্ঘায়ু কামনা করছি। আগামীতে কলেটি আরো ভালোভাবে যেন পরিচালিত হয় সেজন্য সকলের সহযোগীতা কমনা করছি।

কলেজের বর্তমান পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আলহাজ আব্দুল মজিদ মন্ডর এমপি জানান, এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের দাবী পুরণের লক্ষ্যে আমার ক্ষুদ্র চেষ্টায় বঙ্গবন্ধুর সুকন্যা দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার ও শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের আন্তরিক সহযোগীতায় সারা দেশের ন্যায় বেলকুচি কলেজটিও সরকারীকরণ করেছে । সে জন্য প্রধান মন্ত্রীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

আগামীতে কলেজটির আরো উন্নয়নের জন্য আমি ও আমার সরকারের সর্বপরি সহযোগীতা থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: