,


মৃত্যুমুখে প্রসূতি, দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা

মৃত্যুমুখে প্রসূতি, দুই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা

মারুফ সরকার, সিরাজগঞ্জঃ সিরাজগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় কামনা খাতুন (১৯) নামে এক প্রসূতি মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুই চিকিৎসককে দায়ী করে তাদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার প্রসূতির বাবা মো. আবু কালাম ডা. কমল কান্তিদাস ও ডা. আব্দুর রশিদকে দায়ী করে সিরাজগঞ্জ সদর থানায় অভিযোগটি দায়ের করেন।

লিখিত অভিযোগে বাদী মো. আবু কালাম উল্লেখ করেন, তার গর্ভবতী মেয়ে কামনা খাতুনের প্রসব ব্যাথা উঠলে ২৫ জুন শহরের আরাফাত হাসপাতালে নেয়া হয়ে। পরদিন ২৬ জুন ডা. কমলকান্তি অজ্ঞান করার পর ডা. আব্দুর রশিদ সিজার অপারেশনের মাধ্যমে সন্তান প্রসব করেন। এরপর থেকেই কামনা খাতুন অসুস্থ হয়ে পড়েন।

তিন দিন পর বাড়ি নিয়ে এলে আরো বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েন কামনা। পরবর্তীতে ডা. রশিদ রোগীকে মেডিসিন বিশেষজ্ঞের কাছে রেফার করেন। মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক ডা. সাজ্জাদ মাসুদের কাছে নেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তিনি বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিতে বলেন।

শজিমেকে চিকিৎসা শেষে সিরাজগঞ্জ ২৫০শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর পর কিছুটা সুস্থ হলে বাড়িতে নেয়া হয়। কিছু দিন পর আবারো অসুস্থ হয়ে পড়েন কামনা খাতুন। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে গত ২৩ আগস্ট কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সেখানেই তার চিকিৎসা চলছে।

ডা. কমল কান্তি দাস ও ডা. আব্দুর রশিদের ভুল চিকিৎসাতেই প্রসূতি কামনা অসুস্থ হয়েছেন এমন অভিযোগ এনে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন আবু কালাম।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত চিকিৎসক ও আরাফাত হাসপাতালের পরিচালক ডা. আব্দুর রশিদ বলেন, অপারেশনের মাধ্যমে বাচ্চা প্রসবের পর ওই রোগী আমাদের সাথে কোনো যোগাযোগ করেনি। বর্তমানে রোগী কী অবস্থায় রয়েছে সেটি আমাদের জানা নেই।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ জানান, ভুল চিকিৎসার বিষয়ে দুই ডাক্তারের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: