ভবানীপুর বাজার প্রবেশের রাস্তাটি যেন মৃত্যুফাঁদ

নাজমুল হক নাহিদ, (আত্রাই) নওগাঁঃ নওগাঁর আত্রাই উপজেলার ভবানীপুর হাটে প্রবেশের রাস্তাটি সংস্কার অভাবে মৃত্যুফাঁদে পরিণত হয়েছে। রাস্তাটির পার্শে পুকুর থাকায় রাস্তাটি ভেঙ্গে যাওয়ায় চরম জনদুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে এ বাজার থেকে রাজস্ব আয় ব্যহত হওয়ার আশঙ্কা ও করছে এলাকার সচেতন মহল।

জানা যায়, উপজেলার ভবানীপুর বাজার একটি ঐতিহ্যবাহী বাজার। এখানে সপ্তাহে শনিবার ও মঙ্গলবার দুই দিন হাট বসে। এছাড়াও প্রতিদিন সকাল বিকেল হাট বসে। এখানে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে কাপড় ব্যবসায়ী, আলু ব্যবসায়ী, রড সিমেন্ট ব্যবসায়ী, কাঁচা মাল ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস ক্রয় করতে প্রায় প্রতিদিন হাজার হাজার ক্রেতা আসেন এ বাজারে। আত্রাই-নওগাঁ পাকা সড়কের সাথে হাটটি হলেও দক্ষিণ দিক থেকে হাটে প্রবেশ রাস্তাটি মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। ফলে ঘটছে একের পর এক দুর্ঘটনা। দুর্ঘটনা কবলিত হচ্ছে মালবাহী পিক আপ ভ্যান, কর্ভাড ভ্যান, সিএনজি, রিক্সা, অটোরিক্সাসহ ছোট বড় সব ধরনের যানবাহন। এতে করে ক্রেতারা জিনিস কিনে বা বিক্রেতারা সরবরাহ করতে গিয়ে ভাঙ্গা আর গর্তে ভরা রাস্তার কারণে মালামাল পরিবহন করতে মারাত্মক ঝুঁকির সম্মুখীন হচ্ছেন প্রতিনিয়ত এ এলাকার ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ।

ঐতিহ্যবাহী এ হাট থেকে প্রতি বছর সরকারের বিপুল পরিমাণ টাকা রাজস্ব আয় হলেও এ রাস্তাটি মেরামতে কর্তৃপক্ষের নেই কোন উদ্যোগ। ফলে বছরের পর বছর থেকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ওই এলাকার হাজার হাজার জনসাধারণকে।

ভবানীপুর জিএস উচ্চ বিদ্যালয়ের শত শত শিক্ষার্থীদের আসা যাওয়ার জন্য জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এ রাস্তাটি ব্যবহার করতে হয়। এলাকা বাসীর দীর্ঘ দিনের দাবী এ রাস্তাটি সংস্কার হলে এলাকাবাসীর এক নতুন দিগন্তের উন্মোচন ঘটবে। ছাত্র ছাত্রী সহ এলাকার সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ পাবে যোগাযোগের সুফল।

এ ব্যাপারে ভবানীপুর জি এস উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মাহাবুবুর রহমান বলেন, এ রাস্তার উপর দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীর চলাচল খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। কিছু দিন পরপর ঘটে একের পর এক দুর্ঘটনা। রাস্তাটি সংস্কার করা অতিব জরুরী।

বাজার বণিক সমিতির সভাপতি আব্দুল গফুর খাঁন বলেন, হাটের দক্ষিণাঞ্চলের বেশ কয়েকটি গ্রামের লোকজনকে মালামাল নিয়ে এ রাস্তা দিয়ে হাটে প্রবেশ করতে হয়। রাস্তাটি গত কয়েক বছর ধরে ভেঙ্গে চলাচল অনুপযোগী হয়ে রয়েছে। এতে করে রাস্তাটি মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। বাজার কমিটির পক্ষ থেকে আমরা বারবার সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের নিকট রাস্তা ও বাজারের ড্রেনেজ ব্যবস্থা ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নের বিষয়ে বলেছি কিন্তু কোন লাভ হয়নি।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম বাবু বলেন, রাস্তাটি চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবগত করেছি। আশাকরছি রাস্তাটি দ্রুত সংস্কার হবে।