ব্রাজিল যে ৫ কারণে কোপার শিরোপা জিততে পারে

স্পোর্টস ডেস্কঃ আজ রাত ২টায় কোপা আমেরিকার ফাইনালে পেরুর বিপক্ষে মাঠে নামবে ব্রাজিল। ঘরের মাঠে এবার আবার শিরোপার সুবাস পাচ্ছে সেলাসাওরা।
শিরোনাম দেখে অনেকে প্রশ্ন করতে পারেন, তাহলে আর মাঠে খেলার দরকার কী! ব্রাজিলের হাতে সরাসরি শিরোপা তুলে দিলেই হয়। না, ব্রাজিলকে মাঠে খেলেই জিততে হবে। তবে ব্রাজিলের ঘোর নিন্দুকও স্বীকার করবেন, আজকের ফাইনালে ব্রাজিল অনেক এগিয়ে থেকে ফেবারিট। ফুটবল তীর্থ মারাকানায় অবশেষে ব্রাজিলের সামনে উপলক্ষ আসতে যাচ্ছে উৎসবের। দেখে নিন, যে পাঁচ কারণে এবার কোপা জিততে পারে তিতের শিষ্যরা—

১. শক্তিমত্তায় এগিয়ে ব্রাজিল:
খাতা কলমের হিসেব বা মাঠের খেলায় পরিষ্কারভাবে পেরুর চেয়ে এগিয়ে ব্রাজিল। গ্রুপ পর্ব থেকে শুরু করে ফাইনালে পা রাখা পর্যন্ত তিতের দল দেখিয়েছে তাদের শক্তিমত্তা। গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে পেরুকে তো উড়িয়ে দিয়েছিল ৫-০ গোলে। ফলে ফাইনালে সেই পেরুকে পেয়েই আত্মবিশ্বাসে টগবগে হয়ে আছে দানি আলভেজ, জেসুসরা। টুর্নামেন্টে ব্রাজিলের দ্রুত গতির ফুটবলের সঙ্গে নিখাদ বলের নিয়ন্ত্রণ, বিল্ড আপ ফুটবলে পাসের পর পাস খেলে মালা গাঁথা ও বৈচিত্রময় আক্রমণ দর্শকদের মন কেড়ে নিয়েছে। জেসুস, কুতিনহো, এভারটনদের সামনে পেরুর রক্ষণভাগ তাসের ঘরের মতোই ভেঙে পড়বে বলে মনে করছেন বেশির ভাগ ফুটবল-বোদ্ধা।

২. ব্রাজিলের জমাট রক্ষণভাগ
‘আক্রমণভাগ আপনাকে ম্যাচ জেতাতে পারে, কিন্তু শিরোপা জেতাবে রক্ষণভাগ’, কথাটি ফুটবল-দুনিয়ার সেরা কোচদের অন্যতম স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের। স্কটিশ এই কোচের কথাটি ফুটবলে প্রমাণিত। সে হিসেবে ব্রাজিলের কোপা আমেরিকা জয় করা সময়ের ব্যাপার মাত্র। টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত পাঁচ ম্যাচে একটা গোলও খায়নি ব্রাজিল। গোল খাওয়া কী, শুধু আর্জেন্টিনার বিপক্ষে সেমিফাইনালে দুই অর্ধে কিছু সময় ছাড়া ব্রাজিলকে ভয়ও ধরাতে পারেনি কেউ। একেবারে জমাট রক্ষণভাগ বলতে যা বোঝায়, ডেভিড সিলভা-মার্কিনহোস-আলভেজ-লুইসদের ‘ব্যাক ফোর’ তা দেখিয়ে দিয়েছে প্রতিটি ম্যাচেই। তাদের সামনে ছায়া দেওয়ার জন্য বিশ্বের অন্যতম সেরা হোল্ডিং মিডফিল্ডার কাসেমিরো তো আছেনই। এই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার চোখ ফাঁকি দিয়ে গোলরক্ষক আলিসন বেকারের কাছে পর্যন্ত যাওয়াই দুষ্কর। আর ‘বেকার’ নামে হলেও গোলরক্ষক হিসেবে এখন বিশ্বের অন্যতম সেরা। এমন এমনি তো আর গোলরক্ষক হলেও ব্যালন ডি’অরের যোগ্য ভাবা হচ্ছে না তাঁকে।

৩. গ্রুপ পর্বে পেরুর বিপক্ষে বড় জয়
চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলে হারিয়ে কোপার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ব্রাজিল। আর্জেন্টিনার বিপক্ষে কোনো গোল হজম না করে ২-০ গোলের জয় ব্রাজিলের জন্য বিশেষ সুখস্মৃতিরই বটে। তবে কোপা আমেরিকায় ব্রাজিলের কোন ম্যাচটি সেরা? এই প্রশ্নে পেরুর বিপক্ষে ৫-০ গোলের বড় জয়কেই এগিয়ে রাখতে হবে। সেদিন ব্রাজিলের প্রতিটি গোলই ছিল সুরভি ছড়ানো। প্রথমার্ধেই ৩-০ গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে এসেছে বাকি দুটি গোল। ‘নো লুক’ গোল করে বিশেষ ভাবে আলো কেড়ে নিয়েছিলেন রবার্তো ফিরমিনো। বাকি চারটি গোল ভাগাভাগি করে করেছেন কাসেমিরো, এভারটন, দানি আলভেজ ও উইলিয়ান। এই ‘টিম গেম’ নির্ভর দলকে ঠেকাতে হলে ভোজবাজির মতো বদলাতে হবে রিকার্ডো গারেকার শিষ্যদের।

৪. খেলোয়াড়দের ফর্ম
দীর্ঘ ফুটবল মৌসুম শেষে বিভিন্ন ক্লাবে খেলা খেলোয়াড়দের ফর্মের ওপর জাতীয় দলের পারফরম্যান্স নির্ভর করে অনেকটা। এখানে ব্রাজিলের একাদশের বেশির ভাগ খেলোয়াড়েরা আছেন উড়ন্ত ফর্মে। প্রত্যেকেই নিজেদের ক্লাবের হয়ে দেখিয়েছেন দারুণ নৈপুণ্য। চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ের টাটকা স্মৃতি নিয়ে এসেছেন লিভারপুলের গোলরক্ষক অ্যালিসন ও ফরোয়ার্ড রবার্তো ফিরমিনো। ম্যানচেস্টার সিটির জার্সিতে ইংলিশ জয়ের অভিজ্ঞতা আছে মিডফিল্ডার ফার্নানদিনহো ও ফরোয়ার্ড জেসুস। বার্সেলোনাকে লা লিগার শিরোপা জিতিয়েছেন আর্থার ও কুতিনহো। আর ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই তো শিরোপা জিতেছে ব্রাজিলিয়ানদের ওপর ভর করেই। পিএসজির রক্ষণ ভাগটাই মূলত খেলে থাকে ব্রাজিলের জার্সিতে-অধিনায়ক দানি আলভেজ, থিয়াগো সিলভা ও মার্কিনহোস।

৫. ইতিহাস ও পরিসংখ্যান
ঘরের মাঠে কোপা আমেরিকা মানেই যেন ব্রাজিল চ্যাম্পিয়ন, বিষয়টি অলিখিত নিয়মে পরিণত হয়েছে। শেষ চার বারের পরিসংখ্যান দেখুন, এর আগে যে চারবার নিজেদের মাটিতে কোপা আমেরিকা আয়োজন করেছিল ব্রাজিল, প্রতিবারই টুর্নামেন্ট শেষ হয়েছে নীল-হলুদের শিরোপা উচ্ছ্বাসে। এবারের আগে শেষ ১৯৮৯ সালে কোপা আমেরিকার স্বাগতিক হিসেবে উরুগুয়েকে পেছনে ফেলে শিরোপা উল্লাস করেছিল ব্রাজিল। পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা এর আগে কোপা আমেরিকা আয়োজন করেছিল ১৯৪৯,১৯২২ ও ১৯১৯ সালে। পেরু ব্রাজিলের জন্য এমন এক দল, যাদের বিপক্ষে তারা হারেই কালেভদ্রে। গত ৩৪ বছরে, ১৯ বারের মুখোমুখি দেখায় পেরুর কাছে ব্রাজিল হেরেছে মাত্র একবার। সব মিলিয়ে ৩২ বারের দেখায় হেরেছে মাত্র চারবার। তবে সর্বশেষ যেবার ব্রাজিল হেরেছিল, সেটাই হতে পারে পেরুর জন্য প্রেরণা। ২০১৬ সালে অঘটনের জন্ম দিয়ে পেরু কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে থেকে হটিয়ে দিয়েছিল ব্রাজিলকে।

This post was last modified on 07/07/2019 7:28 pm

ডেস্ক রিপোর্টার

একটি বাংলাদেশ - Ekti Bangladesh (ektibd.com) is a leading Online Newspaper & News Portal of Bangladesh. It covers Breaking News, Politics, National, International, Live Sports etc.

Leave a Comment

Recent Posts

জিঞ্জিরা প্রাসাদ – দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি জিঞ্জিরা প্রাসাদ কে ঘিরে। জিঞ্জিরা প্রাসাদ কোথায় অবস্থিত, ইতিহাস, কাঠামো, কেন যাবেন,… Read More

21/09/2020

মুসা খান মসজিদ – ঐতিহাসিক দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি মুসা খান মসজিদ কে ঘিরে। মুসা খান মসজিদ কোথায় অবস্থিত, ইতিহাস, কাঠামো,… Read More

20/09/2020

রিয়েলমি সিক্স আই ফোনের দাম ও স্পেসিফিকেশন

টেক-ট্রেন্ডসেটার ব্র্যান্ড রিয়েলমি 'আনলিশ দ্য পাওয়ার' ট্যাগলাইনে সিক্স সিরিজের নতুন স্মার্টফোন 'রিয়েলমি সিক্স আই' বাংলাদেশের… Read More

20/09/2020

গ্রীন ভিউ রিসোর্ট – দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি গ্রীন ভিউ রিসোর্ট কে ঘিরে। গ্রীন ভিউ রিসোর্ট কোথায় অবস্থিত, ইতিহাস, কাঠামো,… Read More

19/09/2020

রাজা হরিশচন্দ্রের ঢিবি – ঐতিহাসিক দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি রাজা হরিশচন্দ্রের ঢিবি কে ঘিরে। রাজা হরিশচন্দ্রের ঢিবি কোথায় অবস্থিত, ইতিহাস, কাঠামো,… Read More

18/09/2020

ভাষা শহীদ আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর – দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি ভাষা শহীদ আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর ও সংগ্রহশালা কে ঘিরে। শহীদ আবুল… Read More

18/09/2020

This website uses cookies.