বেলকুচিতে ২য় ধাপে ধান ক্রয়ে বিশৃঙ্খলা, কৃষক ইউএন’র উপড়ে ক্ষুব্ধ

বেলকুচি (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে ২য় ধাপে ধান ক্রয়ে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়েছে। এতে কৃষকরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএন) এস এম সাইফুর রহমানের উপড়ে ক্ষুব্ধ হয়ে পরে। এক পর্যায়ে ইউএনও উপজেলা কৃষি অফিসে আশ্রয় নেয়।

বুধাবার দুপুরে বেলকুচি উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌর সভার কৃষকদের ২য় ধাপে ৫৯৮ মেট্টিকটন ধান ক্রয়ের জন্য মাইকিং করে জানিয়ে দেয়া হলে কৃষকের কার্ড নিয়ে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে থেকে আসা কৃষকের নাম লিপিবদ্ধ করতে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। এসময় সাধারণ কৃষকরা ইউএন’র উপড়ে ক্ষুব্ধ হয়ে পরে।

স্থানীয় কৃষকরা জানায়, আমরা প্রত্যন্ত অঞ্চল হতে কাজ কর্ম ফেলে গাড়ী ভাড়া করে এসেও ধান বিক্রি করতে অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছি, সাড়াদিন বসিয়ে রেখে কার্যক্রম স্থগিত করেছে ইউএনও। স্থগিত করে কাজাটা ভালো করেনি। শুধু আমরা হয়রানির স্বীকার হলাম।

এ ব্যাপারে বেলকুচি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ইউসুফ আলী শেখ জানায়, ধান ক্রয় সংক্রান্ত বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা। প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে কৃষকরা এসে শুধু হয়রানীর শিকার হয়েছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কল্যাণ প্রসাদ পাল জানান, আমি কৃষকদের তালিকা ইউএনও অফিসে দিয়েছি। যাচাই-বাছাই করে তালিকা তৈরি করার কথা ছিল।

বেলকুচি সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মীর্জা সোলায়মান হোসেন জানান, কৃষকদের তালিকা তৈরি করার বিষয়ে আমি অবগত নই। দুপুরে কৃষকদের কাছে জানতে পারি মুখ দেখে তালিকা তৈরি করতে নিয়েছিল। পরে কৃষকরা ইউএনও সাহেবের উপড় ক্ষুব্ধ হয়ে পরে। সে তখন কৃষি অফিসে দৌরে আশ্রয় নেয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস,এম সাইফুর রহমান এই প্রতিবেদককে জানান, এ উপজেলায় ২য় ধাপের জন্য ৫৯৮ মেট্টিকটন ধান ক্রয় করা হবে। এ কারণে ৬ টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার কৃষকদের মাইকিং করে নিয়ে আসা হয়, কৃষকদের হট্টগোলের কারণে ধান ক্রয় আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। তবে খুব দ্রুত প্রতিটি ইউনিয়নে গিয়ে তালিকা তৈরি করা হবে।

ডেস্ক রিপোর্টার
একটি বাংলাদেশ - Ekti Bangladesh (ektibd.com) is a leading Online Newspaper & News Portal of Bangladesh. It covers Breaking News, Politics, National, International, Live Sports etc.