,


বিচারক শান এবার প্রতিযোগী

বিচারক শান এবার প্রতিযোগী

বিনোদন ডেস্কঃ ২০০১ সালে মার্কিন টিভি শো ‘ফিয়ার ফ্যাক্টর’ প্রথম সিজনেই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। সময়ের সঙ্গে সেই জনপ্রিয়তা যেন আকাশ স্পর্শ করেছে। আর আকাশ সংস্কৃতির এই যুগে সেই জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে ২০০৬ সালে সনি টিভিতে প্রথম দেখা গেল ভারতীয় ‘ফিয়ার ফ্যাক্টর’। তারপর নাম বদলে ২০০৮ সাল থেকে কালারস টিভিতে এই শো ‘ফিয়ার ফ্যাক্টর: খতরো কি খিলাড়ি’ নামে যাত্রা শুরু করে। বিভিন্ন সময়ে অক্ষয় কুমার, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, অর্জুন কাপুর ও রোহিত শেঠির উপস্থাপনায় এই শো এখন শুধু ‘খতরো কি খিলাড়ি’ নামেই ব্যাপক জনপ্রিয়।

অর্থাৎ এই শো মার্কিন টিভি প্রোগ্রামের ছায়া পেরিয়ে একটা পুরোদস্তুর ভারতীয় ভার্সনে পৌঁছাতে সক্ষম হয়েছে। বিভিন্ন সময়ে নানা সেক্টরের তারকারা এই শোতে এসে নিজেদের ভিন্নভাবে মেলে ধরেছেন, সেই সঙ্গে এই শোকেও এগিয়ে নিয়ে গেছেন। দেখতে দেখতে এই শোর নয়টি সিজন চলে গেছে। ১০তম সিজনের শুটিং শুরু হবে এই বছর জুলাই মাসে, বুলগেরিয়ায়। কাদের এই শোর মঞ্চে দেখা যাবে, তা ফাঁস হয়ে গেছে। আগেই জানা গেছে, ক্রিকেট তারকা যুবরাজ সিং, করন প্যাটেল, কারিশমা তান্না, কবিতা কৌশিক, পূজা ব্যানার্জি, কোরিওগ্রাফার ধর্মেশ, কমেডিয়ান বলরাজ সায়াল, প্রিন্স নারুলা, সানায়া ইরানি, আদা খানদের দেখা যাবে নতুন সিজনে।

বৃহস্পতিবার জানা গেছে, ওপরের নামগুলোর সঙ্গে আরও যোগ দিয়েছেন বলিউডের বিখ্যাত প্লেব্যাক শিল্পী শান। পাঁচবার ফিল্মফেয়ারজয়ী এই শিল্পী অবশ্য এই মঞ্চের একমাত্র শিল্পী নন। তাঁর সঙ্গে দেখা যাবে আরও একজন প্লেব্যাক শিল্পী নীতি মোহনকেও। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদন অনুযায়ী একটা সূত্র জানিয়েছে, গত দুই সিজনের অবিশ্বাস্য সাফল্যের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য এই শোতে বিভিন্ন সেক্টরের বড় নামদের যুক্ত করার পরিকল্পনা ছিল। শান এর আগে অনেকগুলো জনপ্রিয় রিয়েলিটি শোতে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু একজন প্রতিযোগী হিসেবে এটাই তাঁর প্রথম শো। শান এই প্রোগ্রামে অংশ নেওয়ার বিষয়ে উচ্ছ্বসিত। এটাকে জীবনের একটা নতুন পদক্ষেপ আর অভিজ্ঞতা হিসেবেই দেখছেন।

সময়ের সঙ্গে ‘খতরো কি খিলাড়ি’ আয়োজন, প্রতিযোগী, দর্শক, জনপ্রিয়তা, রেটিং—সব দিক থেকে আকারে বড় হয়েছে। তবে গত বছর অত্যধিক জনপ্রিয়তার একটি প্রধান কারণ হলো কমেডিয়ান ভারতী সিংয়ের উপস্থিতি। তাঁর কমেডি দেখার জন্য দর্শকদের একটা বড় অংশ চোখ রেখেছিল টিভির পর্দায়। ২০১৮ সালে প্লেব্যাক শিল্পী আদিত্য নারায়ণকে পেছনে ফেলে ‘খতরো কি খিলাড়ি’র নবম সিজনের বিজয়ী হন কোরিওগ্রাফার ও অভিনয়শিল্পী পুনিত পাঠক।

সব ধরনের দর্শককে এই শোর সঙ্গে যুক্ত করার জন্য প্রায় সব সেক্টর থেকে সেলিব্রিটিদের নেওয়া হয়েছে এই শোতে। দেখা যাক শানকে যুক্ত করার কারণে কতটা শাণদার হয় দশম সিজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: