,


বগুড়ার (Bogra)

বিএনপির ঘাঁটিতেও সাঁড়া নেই ভোটারের

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়াঃ আজ বগুড়া-৬ সদর আসনের উপনির্বাচনের ভোট শুরু হয়েছে সকাল ৯টায়। ৩০শে ডিসেম্বর নির্বাচনের মতোই উপনির্বাচনে সাঁড়া মেলে নি ভোটারদের।আসনিটিতে প্রথমবারের মতো ইভিএমে ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বগুড়া সদরের সুবিল উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র, ছয়পুকুরিয়া বালিকা স্কুল ও কলেজ ভোট কেন্দ্র, ধরমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র, শিকারপুর-কৃষ্ণপুর উচ্চ বিদ্যালেয় ভোট কেন্দ্র, এরুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে ভোটারদের উপস্থিতি একবারেই কম। নেই বললেই চলে।আর বগুড়া-৬ আসনটি জিয়াউর রহমানের জন্মস্থান হওয়ায়। আসনটি বিএনপির ঘাঁটি হিসেবেই পরিচিত ছিল। তবে, ১৯৭৩ সালের পর মহাজোটের নুরুল ইসলাম ওমর জয় পেয়েছিল। ভোটারদের মুখে শোনা যাচ্ছে বিএনপির বাচা-মরার লরাই চলছে। আগের মতো আর উৎসব মূখর ভোট গ্রহণ নেই। আসনটিতে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে নি।
বগুড়া পৌরসভার ২১টি ওয়ার্ডের মধ্যে ২০টি ও সদর উপজেলার ১১ ইউনিয়ন নিয়ে বগুড়া-৬ (সদর) আসন। ভোটার ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৪৫৮ জন। ১৪১ কেন্দ্রে ৯৬৫ বুথে ইভিএমে ভোটাধিকার প্রয়োগ করছেন ভোটাররা।

বগুড়া পুলিশের সূত্র জানায়, ১৪১ কেন্দ্রের মধ্যে ১১১টি ঝুঁকিপূর্ণ। নির্বাচনে সহিংসতা এড়াতে তিনস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

ধরমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রের সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার লাবন্য কনা দাস জানান, ভোটারদের উপস্থিতি অনেকাংশে কম। বেলা বাড়লে ভোটারদের ভীড় হতে পারে।


নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিভিন্ন বাহিনীর প্রায় সাড়ে তিন হাজার সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে এক কর্মকর্তার নেতৃত্বে পাঁচ পুলিশ ও সাধারণ কেন্দ্রে এক কর্মকর্তার নেতৃত্বে চার পুলিশ রয়েছে। এছাড়া ১৫ প্লাটুন বিজিবি সদস্য, প্রতি কেন্দ্রে ১২ আনসার সদস্য, র্যাবের ৮ সদস্যের ১৪টি টিম দায়িত্ব পালন করছে। ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে রয়েছে ২৬টি ভ্রাম্যমাণ টিম।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমএম বদিউজ্জামান জানান, ‘সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছে। ১৪১টি ভোটকেন্দ্রের কোনো স্থানেই অপ্রীতিকর কোন ঘটনা ঘটেনি।আশা রাখি ঘটার সম্ভাবনা নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: