বাগমারার ৬ বিদ্যুৎ কর্মকর্তাকে অব্যহতি

রাজশাহী প্রতিনিধিঃ  রাজশাহী জেলার বাগমারা থানার উপ-মহাব্যবস্থাপক রেজাউল করিম ও পল্লী বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের আরও ৫ কর্মকর্তাকে অব্যবস্থাপনার অভিযোগ থাকায় কাজের সময়ে শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে বলে শনিবার থেকে তাৎক্ষণিক অব্যহতি দেওয়া হয়েছে । অন্যান্য বহিষ্কৃত ব্যক্তিরা হলেন-এজিএম রবীন্দ্র বসাক, জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার লুৎফর রহমান, মারফত আলি ও অপর দুজন লাইনম্যান । পল্লী বিদ্যুত নাটোর শাখার মহাব্যবস্থাপক সোহরাব হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে একটি নোটিশ বাগমারা অফিসে পাঠিয়েছেন।

গত ৪ অগাস্ট, রিয়াজ উদ্দিন (৫২) নামে পল্লী বিদ্যুতের এক সাবেক কর্মী পাওয়ার ক্যাবল কাজের জন্য বাগমারা উপজেলার হঠাৎপাড়া গ্রামে যান । ঘটনাক্রমে, তিনি পাওয়ার তারের সঙ্গে আটকে যান এবং ঘটনা স্থলেই তার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়. কিন্তু, ৩ দিন পর ডিজিএম রেজাউল করিম দাবি করেন, দুর্ঘটনাকবলিত ব্যক্তি রিয়াজ তাঁদের অফিসের কোনও কর্মী নন । যদিও দুর্ঘটনার দিন তাদের নির্দেশেই রিয়াজ কাজে যান ।

এক প্রতিবেদনে ডিজিএম ও অন্য এক কর্মকর্তার অব্যবস্থাপনা, দুর্নীতি ও ব্যাপক অনিয়ম প্রকাশ করা হয় । এই প্রতিবেদনের পর, পললী বিদ্যুৎ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার অভিযোগে তাদের অব্যহতি দেয়া হয়।

পল্লী বিদ্যুৎ নাটোর শাখার মহাব্যবস্থাপক সোহরাব হোসেন জানান, রিয়াজ অনেক দিন যাবৎ পল্লী বিদ্যুতের সাথে কাজ করছিলেন। তিনি আসলে খন্ডকালীন শ্রমিক । কিন্তু অন্য একটি দুর্ঘটনার কারনে তাকে অব্যহতি দেয়া হয় । কর্মকর্তারা কিছু অনিয়ম করলেও, তিনি নিঃশব্দে কাজ চালিয়ে যাচ্ছিলেন ।কিন্তু গত ৪ অগাস্ট দুর্ঘটনাবশত তাঁর মৃত্যু হয় ।