,


‘নির্বোধ’ ভনের কথাই সত্যি হচ্ছে!
‘নির্বোধ’ ভনের কথাই সত্যি হচ্ছে!

‘নির্বোধ’ ভনের কথাই সত্যি হচ্ছে!

ডেস্ক রিপোর্টারঃ সবশেষ দুটি বিশ্বকাপে শিরোপা জিতেছে আয়োজক দেশ। এবার আয়োজক দেশ ইংল্যান্ডের সম্ভাবনাও কম নয়। কাল অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে ইংল্যান্ড

এজবাস্টনে কাল সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে পাত্তাই পায়নি অস্ট্রেলিয়া। স্বাগতিকেরা ৮ উইকেটে জিতেছে ১০৭ বল হাতে রেখে। দাপুটে জয় বললেও যেন কম বলা হয়। মাইকেল ভন বরাবরই রসিক। খেলা চলাকালীন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বেশ খোঁচা দিয়েই টুইট করেন সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক, ‘অস্ট্রেলিয়ার এখন খালি পায়ে বল করে দেখা উচিত।’ অর্থাৎ কোনো কিছুতেই যেহেতু কাজ হচ্ছে না তাই খালি পায়ে একবার চেষ্টা করতে কী সমস্যা!

অ্যাডাম গিলক্রিস্টের কাছে ভনের টুইট ‘সমস্যা’ বলেই মনে হয়েছে। তাই পাল্টা টুইটে ভনকে ‘নির্বোধ’ বলেছেন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি এ ক্রিকেটার। আসলে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া লড়াই যে সংস্করণ কিংবা যে টুর্নামেন্টেই গড়াক না কেন, উত্তেজনা থাকবেই। আর এমন উত্তেজনার ম্যাচে জল ঢেলে তরতরিয়ে ফাইনালে ওঠায় ইংল্যান্ডের আনন্দটা যেন আরও বেশি। দু-এক দিনের কথা তো নয়, দীর্ঘ ২৭ বছর পর বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে ‘ক্রিকেটের জনক’খ্যাত দেশটি। সময়ের হিসেবে ৩২৭ মাস, ১৪২৪ সপ্তাহ, ৯৯৬৯ দিন আর ২৩৯২৫৬ ঘণ্টা পর বিশ্বকাপ ফাইনালের দেখা পেল ইংল্যান্ড।

স্বাগতিকদের বিশ্বকাপজয়ের সাম্প্রতিক ইতিহাসও ইংলিশদের পক্ষে। বিশ্বকাপের প্রথম সংস্করণ (১৯৭৫) থেকে ২০০৭ পর্যন্ত কোনো স্বাগতিক দেশই শিরোপা জিততে পারেনি। কিন্তু এরপর থেকেই দাপট চলছে স্বাগতিকদের। ২০১১ বিশ্বকাপ জিতেছে আয়োজক দেশ ভারত, পরের টুর্নামেন্টের শিরোপাও উঠেছে আয়োজক দেশের হাতে—অস্ট্রেলিয়া। তাহলে এবার আয়োজক দেশ হিসেবে হ্যাটট্রিক শিরোপাজয় কেন নয়!

সেটি হতেও পারে আবার নাও হতে পারে। কিন্তু ভনের কথা মিথ্যে হওয়ার সুযোগ নেই। সাবেক ইংলিশ ওপেনার এর আগে বলেছিলেন, ভারতকে যে দল হারাতে পারবে সে দলই বিশ্বকাপ জিতবে। শেষ পর্যন্ত তেমন কিছুই ঘটতে যাচ্ছে। গ্রুপপর্বে ইংল্যান্ডের কাছে হেরেছে ভারত, আর সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে। শেষ পর্যন্ত ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ডই মুখোমুখি হচ্ছে ফাইনালে। রোববার লর্ডসে ফাইনালে যে দলই জিতুক ভনের কথাই তো সত্যি হচ্ছে। নিজের ঢাক পেটাতে তাই দেরি করেননি ভন। ইংল্যান্ড কাল ফাইনাল নিশ্চিত করার পথে থাকতেই তাঁর টুইট, ‘সব সময় বলেছি, যে দলই ভারতকে হারাতে পারবে তারা শিরোপা জিতবে।’

গত দুটি বিশ্বকাপের ‘ট্রেন্ড’ কিন্তু ইংল্যান্ডের পক্ষে। ২০১১ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল ভারত এবং পরে দলটি চ্যাম্পিয়নও হয়েছিল। ২০১৫ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ভারত হেরেছে সেই অস্ট্রেলিয়ার কাছেই। পরে অস্ট্রেলিয়াই শিরোপা জিতে নেয়। আর এবার সেমিতে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে উঠল ইংল্যান্ড, শিরোপা তো তাদেরই জেতার কথা!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: