,


দুরপাল্লার বাস-ট্রেনের টিকিট না পেয়ে বেনাপোলে ভারত ফেরত যাত্রীরা মহাবিপাকে

দুরপাল্লার বাস-ট্রেনের টিকিট না পেয়ে বেনাপোলে ভারত ফেরত যাত্রীরা মহাবিপাকে

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ পবিত্র ঈদুল অাযহার ছুটি শেষ হওয়ায় ভারত ফেরত যাত্রীরা দুর পাল্লার বাসে ও ট্রেনের টিকেট না পেয়ে বেনাপোল সীমান্তে পাসপোর্ট যাত্রীরা পড়েছে মহা বিপাকে। যারা আগাম টিকেট কেটেছেন তারা ফিরতে পারলেও অন্যরা বাস ও ট্রে নের কাউন্টারে টিকেটর অপেক্ষায় রয়েছেন ঘন্টার পর ঘন্টা। কোন দুর পাল্লার বাসে কোন টিকিট নেই। নারী শিশু ও বৃদ্ধ যাত্রীরা বাস কাউন্টারে বিশ্রামাগারে অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।
রোববার অনেকে ঢাকার পথে সরাসারি বাস না পেয়ে লোকাল বাসে করে যশোর যাচ্ছে। সেখান থেকে নানা কৌশলে গন্তব্যে পৌছাতে হচ্ছে। ভোগান্তির মধ্যে অনেক যাত্রী আবার বাড়তি ভাড়া’ নেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন পরিবহন কর্তৃপক্ষ বিরুদ্ধে।

সোহাগ পরিবহনের ম্যানেজার শহিদুল ইসলাম জানান, আমাদের টিকেট সব অনলাইনে বিক্রি হয়ে গেছে। রোববারের জন্য কিছু টিকিট থাকলেও তাও শেষ হয়ে গেছে সকালেই।
ঢাকার মিরপুরের রতন কোলকাতা গিয়েছিলেন বেড়াতে তিন বন্ধুর সঙ্গে নিয়ে। বেনাপোলে এসে কোন টিকিট না পেয়ে এক আত্মীয়র বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। তাদের আর ঢাকায় ফেরা হলো না। তবে সোমবারের বাসের টিকিট নিয়ে বাড়ি ফিরতে চান তারা।

বেনাপোল রেল স্টেশনের স্টেশন মাস্টার সহিদুজ্জামান বলেন, বেনাপোল থেকে ঢাকাগামী ‘বেনাপোল এক্সপ্রেসে’র ২২অগাস্ট পর্যন্ত সকল টিকেট বিক্রি হয়ে গেছে। যেহেতু অনলাইনে টিকিট বিক্রি হয় তাই টিকিট মিলছে না। তবে আগামী সপ্তাহ থেকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলে আশা করেন তিনি।

বেনাপোল থেকে দুর পাল্লার বাসের টিকিটের দাম বেশি রাখা হচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন সাইদুর রহমান নামে এক যাত্রী। তিনি বলেন ঢাকাগামী এসি বাসের বাড়া ১ হাজার ৩ ‘শ টাকার বদলে ১ হাজার ৬’শ টাকা আর নন এসি বাসের ৫’শ টাকার ভাড়া এক হাজার টাকা রাখা হচ্ছে।

বেনাপোলের সোহাগ পরিবহনের ম্যানেজার শহীদুল ইসলাম জানান, বেনাপোল থেকে ঢাকামুখী যাত্রীর চাপ থাকায় ঢাকা থেকে বাসগুলো আসছে খালি । তাই টিকিটের বাড়তি মূল্য নেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: