,


দর্শকের মনের মত কাজ করবো: আরেফিন সোহাগ

দর্শকের মনের মত কাজ করবো: আরেফিন সোহাগ

মারুফ সরকার, বিনোদন প্রতিবেদকঃ পর্দায় নিজেকে দেখতে কে না ভালোবাসে। সবার মনেই ইচ্ছা হয় নিজেকে পর্দায় দেখতে। কিন্তু স্বপ্নটা বাস্তবে কত জনের কাছে ধরা দেয়? কঠোর পরিশ্রম আর চেষ্টা একমাত্র পারে এ স্বপ্নটাকে হাতে এনে দিতে।

প্রশ্ন: আপনার ছোট বেলার গল্প বলেন।

আরেফিন: আমি ছোট বেলায় অনেক চ ল একটা ছেলে ছিলাম। ক্লাসের সব থেকে ফাকিবাজ ছেলেটা আমি। আর সে কারনে স্যারদের মুখে মুখে থাকতাম। হৈ চৈ করে ক্লাসটাকে মাতিয়ে রাখতাম। স্কুলের গাছে ডাব চুরি করতাম বন্ধুরা মিলে। অনেক মজায় কেটেছে সেই ছোট্ট বয়সটা।

প্রশ্ন: আপনি কেন এই পেশায় আসলেন?

আরেফিন: প্রথমত চলচ্চিত্রকে ভালোবেসে। তারপর নিজের ইচ্ছা বা শখ যেটাই বলেন।

প্রশ্ন: এ পযর্ন্ত আসতে আপনাকে কি কি সমস্যার সামনে পড়তে হয়েছে?

আরেফিন: অনেক ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হয়েছি। বলতে গেলে আর্থিক সমস্যাটা বেশি ছিল। ওই মুহুর্তে সাহায্য করার মত কেউ ছিল না। কেউ নতুন হিসাবে সুযোগ দিত না।

প্রশ্ন: আপনার এখানে আসার পিছনে সব থেকে বেশি কার অবদান?

আরেফিন: কঠিন প্রশ্ন! নিজের চেষ্টা তো থাকেই। আর অবদান বলতে গেলে বলতে হয় আমার প্রিয় দুই জন কাছের মানুষ। আমি নাম বলবো না। তারা দুজন যদি আমাকে উৎসাহ আর সার্পোট না দিতো আমি আজ এখানে আসতে পারতাম না।

প্রশ্ন: ব্যক্তি আরেফিন সোহাগ সর্ম্পকে কিছু বলেন।

আরেফিন: ব্যাক্তি আরেফিন সোহাগ বলতে, আমি একজন খুব চল টাইপের, যেটা ভাবি সেটাই করি এমন আর কি। খুব মানুষ প্রিয় এবং এক কথায় বিশ্বাস করি। কিন্ত একটু সন্দেহ প্রকৃতির। এর থেকে বেশি বলতে পারবে, যারা আমার সাথে মিশে তারা।

প্রশ্ন: আগমী পরিকল্পনা কি?

আরেফিন: অবশ্যই সিনেমা নিয়ে কাজ করতে চাই, প্রযোজকের খাতায় নাম লেখানোর ইচ্ছা আছে। দর্শক প্রিয় ছবি নির্মানের পরিকল্পনা আছে। দেশের জন্য কিছু করতে চাই।

প্রশ্ন: বর্তমানে চলচ্চিত্রের প্রেক্ষাপট নিয়ে কিছু বলেন?

আরেফিন: আমি ছোট মানুষ এসব নিয়ে কিছু বলার নাই। দেশে ভালো সিনেমা নির্মান হচ্ছে, আগামীতেও হবে। আমরা নিজ নিজ যায়গা থেকে যদি একটু পরিবর্তন হয় একদিন তাহলে ঠিক বাংলা চলচ্চিত্র ঘুরে দাড়াবে।

প্রশ্ন: আপনার দর্শকদের উদ্দেশ্যে কিছু বলুন।

আরেফিন: আমার শোভাকাঙ্খি যারা আছেন, তাদের সব সময় বলি আপনারা বাংলাদেশের সিনেমা দেখুন। হলে গিয়ে সিনেমা দেখুন, আলোচনা সমালোচনা করুন হলে বসে।

উল্লেখ্য, আরেফিন সোহাগ ২০১৮ সালের শুরুতে টিকলী সিনেমার মাধ্যকে পর্দায় আসেন। তিনি একজন সংবাদকর্মী। দীর্ঘদিন তিনি দেশের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে কাজ করে আসছেন। বর্তমানে তিনি একটি গণমাধ্যমে বার্তা সম্পাদকের দায়িত্ব পালক করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: