,


ঠাকুরগাঁওয়ে মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম শীর্ষক কর্মশালা

ঠাকুরগাঁওয়ে মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম শীর্ষক কর্মশালা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ মানবিক মূল্যবোধ ও নৈতিকতা সম্পন্ন জাতি গঠনে মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের ভূমিকা শীর্ষক দিনব্যাপী ঠাকুরগাঁও জেলা পর্যায়ের এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম হলরুমে এ কর্মশালা হয়। আর এই কর্মশালার আয়োজন করে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট এর মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায়ের ঠাকুরগাঁও জেলা কার্যালয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে দিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধন করেন মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায়ের প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব রঞ্জিত কুমার দাস।

উদ্বোধন শেষে বক্তব্যে প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব রঞ্জিত কুমার দাস বলেন, ‘মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম’ ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন একটি প্রকল্প। প্রাক-প্রাথমিক এবং বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্রের মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা প্রকল্পের প্রধান কাজ। এছাড়া নিরক্ষরতা দূরীকরণে, বিদ্যালয়ে গমনোপযোগী ১০০% শিশুকে বিদ্যালয়ে ভর্তিতে এবং ঝড়ে পড়া রোধ করতে প্রকল্পটি কাজ করছে। টেকসই উন্নয়ন অভিষ্ট অর্জন, সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন, নারীর ক্ষমতায়ন এবং সরকারের ‘ভিশন-২০২১’ বাস্তব রূপায়নে প্রকল্পটি কার্যকর ভূমিকা রাখছে।

ঠাকুরগাঁওয়ের জেলা প্রশাসক ড. কেএম কামরুজ্জামান সেলিমের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, ঠাকুরগাঁও সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. গোলাম কিবরিয়া মন্ডল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) নুর কুতুবুল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল আসাদ মো: মাহফুজুল ইসলাম, ঠাকুরগাঁও প্রেস ক্লাবের সভাপতি মনসুর আলী।

এছাড়াও বক্তব্য দেন, জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা আয়েশা সিদ্দিকা তুলি, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দ্রৌপদী দেবী আগারওয়ালা, ঠাকুরগাঁও ইসকন মন্দিরের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ ভক্তিবিনিময় স্বামী মহারাজ, জেলা সহকারী প্রকল্প পরিচালক এ কে এম হাবিবুল্লাহ সিদ্দিকী প্রমুখ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের রাজশাহী বিভাগীয় মাস্টার ট্রেইনার রানু বাসফোর।

কর্মশালায় জেলার বিভিন্ন মন্দির পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ, মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও সাংবাদিকসহ প্রকল্প সংশ্লিষ্ট দেড় শতাধিক প্রতিনিধি কর্মশালায় অংশ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: