,


জেনারেল হাসপাতালে ১৫ ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসা আক্রান্তরা ঢাকা ফেরত

জেনারেল হাসপাতালে ১৫ ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসা আক্রান্তরা ঢাকা ফেরত

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে এ পর্যন্ত ১৫ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিয়েছে। এরমধ্যে ৪ জনকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়েছে। বর্তমানের হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছে ১১ জন ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত রোগী। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত এসব রোগীরা সকলে ঢাকায় থাকেন। এদের মধ্যে দুইজন ঢাকাতেই পরীক্ষা-নিরিক্ষার পর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার রিপোর্ট পাওয়ার পর কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে এসে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাকী ১৩জন ঢাকা থেকে ফিরে কুড়িগ্রামে পরীক্ষা-নিরিক্ষা করার পর তাদেরও ডেঙ্গু ধরা পড়লে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছে।
কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল সুত্র জানান, ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবেলায় হাসপাতালের কার্ডিওলজি ওয়ার্ডের একটি কক্ষে ডেঙ্গু কর্ণার খোলা হয়েছে। এই কর্ণারে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
এছাড়াও হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের পরীক্ষার ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। তবে পরীক্ষার কিডস এর স্বল্পতা রয়েছে।
অন্যদিকে ডেঙ্গু প্রতিরোধে কুড়িগ্রাম পৌরসভা কর্তৃপক্ষ তিনটি ফগার মেশিনের মাধ্যমে মশা নিধনের কার্যক্রম শুরু করেছে।
জেনারেল হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসারত সদর উপজেলার কাঠালবাড়ি ইউনিয়নের মামুন জানান, আমি ঢাকা পলিটেকনিক এর তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। আমি বাড়িতে আসার পর জ্বরে আক্রান্ত হই। গত বুধবার কুড়িগ্রামের একটি ক্লিনিকে পরীক্ষা করে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হই।
জেলা শহরের পাওয়ার হাউজ পাড়ার আরিফুল ইসলাম (২৮) জানান, আমি ঢাকায় আইসিটিতে প্রশিক্ষনরত ছাত্র। গত ৪দিন আগে বাড়িতে আসি। এরপর জ্বরে আক্রান্ত হই। পরে গত ৩০ জুলাই কুড়িগ্রামে পরীক্ষার পর ডেঙ্গু ধরা পড়ায় আমি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছি।
কুড়িগ্রাম পৌর মেয়র আব্দুল জলিল জানান, আমাদের পৌরসভায় কোন ফগার মেশিন ছিল না। তিনটি ফগার মেশিন ঢাকা থেকে এনে সদর হাসপাতাল চত্ত্বর থেকেই মশা নিধনের ঔষুধ ছিটানোর কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এটা পর্যায়ক্রমে পৌরসভার সকল এলাকায় ছিটানো হবে।
এব্যাপারে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা: আবু মো: জাকিরুল ইসলাম জানান, হাসপাতালে এপর্যন্ত ১৫ জন ডেঙ্গু রোগী এসেছে। এদের মধ্যে দুইজনকে রেফার্ড করা হয়েছে। আর ১১জনকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এসব রোগী সকলেই ঢাকা থেকে ফিরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: