,


জন্মদিনে এ কেমন ‘উপহার’ পেলেন সঞ্জয়
জন্মদিনে এ কেমন ‘উপহার’ পেলেন সঞ্জয়

জন্মদিনে এ কেমন ‘উপহার’ পেলেন সঞ্জয়

ডেস্ক রিপোর্টারঃ আজ ২৯ জুলাই। ৬০ বছর আগে এই দিনে বলিউড তারকা সুনীল দত্ত আর নার্গিসের ঘর আলো করে প্রথম কেঁদেছিলেন সঞ্জয় দত্ত। আজ তাঁর ৬০তম জন্মদিন। জন্মদিনের পূর্বপরিকল্পনায় ছিল, আজ মুক্তি দেবেন নতুন ছবি ‘প্রস্থানাম’–এর টিজার। কিন্তু সঞ্জয় দত্ত বলে কথা! জীবনের রূপ তো আর কম দেখলান না তিনি। ওপরওয়ালা বোধ হয় অন্য কিছু পরিকল্পনা রেখে রেখেছিলেন তাঁর জন্য। তাই বলা নেই কওয়া নেই, সব পরিকল্পনা ভেস্তে দিল অনাকাঙ্ক্ষিত এক ‘উপহার’। সেই উপহার আর কিছু নয়, আইনি নোটিশ। তা–ও আবার ‘প্রস্থানাম’কে নিয়েই।

বলে রাখা ভালো, ‘প্রস্থানাম’ ২০১০ সালের জনপ্রিয় তেলেগু পলিটিক্যাল অ্যাকশন ড্রামা ফিল্ম। নতুন ‘প্রস্থানাম’ পুরোনো ‘প্রস্থানাম’–এর রিমেক। তেলেগু নায়ক সাই কুমারের জায়গায় সঞ্জয় দত্ত এবং সর্বানন্দের জায়গায় আলী ফজলকে দেখা যাবে।

শেমারু এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেডের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি কেতান মারু আইনি নোটিশ পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বলিউড হাঙ্গামায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, কেতান মারু এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন ‘হ্যাঁ, আমরা সঞ্জয় দত্ত ও “প্রস্থানাম” ছবির রিমেকের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছি। কেননা এই ছবির রিমেক বানানোর স্বত্ব কেবল শেমারুর আছে।’

মারু আরও জানান, তিনি সঞ্জয় দত্তের কোনো ক্ষতি চান না। চান না যে তাঁর সুনাম ক্ষুণ্ন হোক। তিনি শুধু একটি বেআইনি কাজকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখাতে চান। যাতে এই ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা ভুল সংশোধন করে আইন মেনে সামনে এগোতে পারেন। ২০১২ সালে নাকি ‘প্রস্থানাম’–এর রিমেকের অধিকার পায় শেমারু।

যখন শেমারু জেনেছে যে এই ছবিটির রিমেকে সঞ্জয় দত্ত অভিনয় করছেন, ‘তখনই আমরা বিষয়টি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সামনে এনেছি। কিন্তু কেউ গা করেনি। তাঁরা তাঁদের নিজস্ব গতিতে রিমেকের কাজ চালিয়ে গেছেন। আমি বারবার বলেছি, এই ছবির রিমেকের অধিকার কেবল শেমারুর।’

‘আমরা কোনো মামলা করিনি। আমরা এই ছবির কোনো ঝামেলা চাইনি। শেমারু খুবই প্রতিথযশা কোম্পানি। আমরা কোনো দিন কোনো অনৈতিক কাজ করিনি। এ প্রতিষ্ঠান এখন পর্যন্ত কোনো দাগ বা আঁচড় ছাড়া সুনামের সঙ্গে কাজ করে আসছে। আর শেমারু ছাড়া অন্য কেউ যদি “প্রস্থানাম”–এর রিমেক বানায়, তাহলে এটা বেআইনি।’

শেষে মারু পরিষ্কার করলেন এত সব প্রতিবাদের আসল রহস্য। সোজা কথায়, ‘প্রস্থানাম’কে এখন শেমারুর কাছ থেকে স্বত্ব কিনতে হবে। আর এ জন্য শেমারু যে পরিমাণ অর্থ দিয়ে ‘প্রস্থানাম’–এর (২০১০) প্রযোজকদের কাছ থেকে কিনেছিলেন, সমপরিমাণ অর্থ দিতে হবে। তবেই ‘প্রস্থানাম’–এর রিমেক শুদ্ধ হবে। নতুবা ‘প্রস্থানাম’–এর রিমেক অনৈতিক ও বেআইনি।

যা হোক, আইনি নোটিশ পেয়েও সঞ্জয় দত্ত তিন সন্তান আর স্ত্রী মান্যতা দত্ত আর কাছের বন্ধুদের সঙ্গে কেক কেটে উদযাপন করেছেন জন্মদিন। যদিও ‘প্রস্থানাম’–এর টিজার আসেনি এখনো।

‘প্রস্থানাম’ ছাড়াও সঞ্জয় দত্তকে আরও দেখা যাবে ২০১৮ সালের কন্নড় ভাষার জনপ্রিয় ছবি ‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার ওয়ান’–এর সিক্যুয়েল ‘কেজিএফ: চ্যাপ্টার টু’তে। আর আজ মুক্তি পেয়েছে এই ছবিতে সঞ্জয় দত্তের ফার্স্ট লুক। এই ছবির অন্যতম প্রযোজক ফারহান আকতার জন্মদিনে এই ছবিতে সঞ্জয় দত্তের ‘ফার্স্ট লুক’ শেয়ার করে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। নিজের ইনস্টাগ্রাম পেজ থেকে ছবির পোস্টার শেয়ার করে ফারহান লিখেছেন, ‘ছোটবেলায় ওর প্রথম ছবি রকির শুটিং ব্যান্ডস্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে দেখতাম মনে আছে। এত বছর পর ওর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পেয়ে সত্যিই স্পেশাল লাগছে। শুভ জন্মদিন…।’ সঞ্জয় দত্ত ছাড়াও এই ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা যাবে রাবিনা ট্যান্ডনকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: