,


কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল লাইন সংস্কার কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন হাসিনা-মোদী

কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল লাইন সংস্কার কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন হাসিনা-মোদী

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ সোমবার বিকেলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির যৌথ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করলেন, মৌলভীবাজারের কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল পথ সংস্কার কাজ।

বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রকল্পের অধীনে কাজটি বাস্তবায়ন হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হতে ৬৭৮ কোটিরও বেশী টাকা খরচ হবে। যার বেশীর ভাগ খরচ করবে ভারতের এক্সিম ব্যাংক।

এসময় কনফারেন্সে যুক্ত থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি ও ত্রিপুরার মূখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

ভিডিও কনফারেন্সে প্রথমে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এরপর বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী বক্তব্য রাখেন।

এরপর বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বক্তব্য রাখেন এবং সবশেষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বক্তব্য রাখেন। এসময় নরেন্দ্র মোদী বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সাথে এ পর্যন্ত তাঁর বিভিন্ন বিষয়ে চারটি সফল ভিডিও কনফারেন্স হয়েছে।

কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেল লাইন সংস্কার কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন হাসিনা-মোদী

ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন, মৌলভীবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ মো. শাহাব উদ্দিন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ সদস্য অধ্যাপক রফিকুর রহমান, মৌলভীবাজার-৪ আসনের সাংসদ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ, জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নেছার আহমদ প্রমুখ।

দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে বন্ধ থাকা আবার জেগে উঠবে বন্ধ থাকা ৬টি ষ্টেশন। কাজ শুরু হওয়ায় খবরে আনন্দিত এলাকার লোকজন ও ব্যবসায়ীরা। ব্যবস্যা-বাণিজ্যসহ দু’দেশের সম্পর্ক উন্নয়নেও যথেষ্ট ভূমিকা রাখবে রেল লাইনটি।

২০০২ সাল থেকে বন্ধ থাকা মৌলভীবাজারের কুলাউড়া-শাহাবাজপুর রেলপথকে যৌথ প্রকল্পের মাধ্যমে সচল করতে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে ২০১৫ সালের জুন মাসে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে যৌথ চুক্তি হয়।

সেই অনুয়াযী প্রকল্পটির কাজ করতে ভারতের স্বনামধন্য ঠিকাদারী প্রতিষ্টান কালিন্দী রেল নির্মান লিমিটেড এর সাথে ২০১৭ সালের ১৫ নভেম্বর চুক্তি হয়েছে। এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করে কুলাউড়া-শাহাবাজপুর ৫৩ কি:মি: রেলপথের সংস্কার কাজ শুরু করেছে প্রতিষ্টানটি। পুরাতন রেল লাইন তুলে নতুন করে ডুয়েল লাইন নির্মাণ করা হবে।

আর এলাকাবাসীসহ সকলের সহযোগিতায় নির্দিষ্ঠ সময়ের মধ্যে প্রকল্পটির কাজ শেষ করতে পারবেন বলে আশা করছেন কালিন্দী রেল নির্মানের কর্মকর্তারা।

আর এই প্রকল্প বাস্তবায়নে ভারতের ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের সাথে লোকাল এজেন্ট হিসেবে কাজ করছে বাংলাদেশের ঠিকাদারী প্রতিষ্টান রূপসী বাংলা রেল নির্মান লিমিটেড। দক্ষ জনবল, রেলপথ নির্মানে প্রয়োজনীয় সকল ধরনের সাপোর্ট দিচ্ছে বাংলাদেশী এই প্রতিষ্টানটি।

কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেলপথ সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় আনন্দিত এলাকাবাসী। আবার চালু হবে কুলাউড়া-শাহাবাজপুর লাইনে ট্রেন চলাচল। বাস্তবে রূপ নেবে মানুষের স্বপ্ন। ভারত-বাংলাদেশ বন্ধুত্বপূর্ন ও ব্যবসায়িক সম্পর্ক আরো জোড়দার হবে। পণ্য আমদানী- রপ্তানী ও যাতায়াতের নতুন দ্বার উন্মোচিত হবে বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: