আমাদের এগিয়ে যেতে হবে,মাশরাফি না থাকলেও

স্পোর্টস ডেস্কঃ মাশরাফি বিন মুর্তজা সংবাদ সম্মেলনে কেন আসেননি—দলের মিডিয়া ম্যানেজার রাবীদ ইমাম এ প্রশ্নের সদুত্তর দিতে পারেননি বা দিতে চাননি। তিনি কিছু একটা ব্যাখ্যা দিলেন। কিন্তু তা সাংবাদিকদের তৃপ্ত হওয়ার মতো কিছু নয়।

বিশ্বকাপে ব্যক্তিগত ব্যর্থতা, বাংলাদেশের সেমিফাইনাল না খেলতে পারা, নিজের ভবিষ্যৎ—মাশরাফিকে অনেক প্রশ্নই করার ছিল সংবাদমাধ্যমের। ‘ভীষণ সংবাদমাধ্যম–বান্ধব’ হিসেবে পরিচিত বাংলাদশ অধিনায়ক এজবাস্টনে ভারতের কাছে হারের পর নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন। পারতপক্ষে সংবাদমাধ্যমের সামনে আসছেনই না। আজ লর্ডসের ব্যালকনি থেকেই যেমন নামলেন না মাশরাফি, অনুশীলন দূরে থাক।

সংবাদ সম্মেলন মাশরাফি না এলেও তাঁর প্রসঙ্গ ঠিকই থাকল। বাংলাদেশ অধিনায়ক–প্রসঙ্গে কোচ স্টিভ রোডসকে কী প্রশ্ন করা হলো এবং তিনি কী উত্তর দিলেন সেটি থাকল এখানে—

* মাশরাফি অবশ্যই তাঁর শেষ বিশ্বকাপ খেলছে। কাল বিশ্বকাপে তাঁর শেষ ম্যাচ খেলতে নামছে। দল তাঁকে নিয়ে কতটা আবেগতাড়িত? এই ম্যাচটা দলের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ?
স্টিভ রোডস: খেলোয়াড়েরা তাকে ভীষণ সম্মান করে। প্রায়ই যে শব্দটা ব্যবহার করি—যোদ্ধা। সে দলের জন্য যুদ্ধ করতে নামে। মানুষ তাকে এ কারণে সম্মান করে, ভালোবাসে। ড্রেসিংরুমে খেলোয়াড়েরা তাকে ভালোবাসে। সে বলেছে এটা তার শেষ বিশ্বকাপ। এটা তার জন্য আবেগময় হবে। বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচ খেলতে নামায় আশা করি ছেলেরা তাকে যথার্থ সম্মান দেবে। তবে ম্যাচের মনোযোগ রাখাটা হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা সেটাই করব।

* গত কদিনে মাশরাফির অবসর নিয়ে অনেক কথা হলো। টুর্নামেন্টের মাঝপথে অধিনায়কের অবসরের কথা কতটা প্রভাবিত করছে দলকে? আর এ মাসের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কা সফরে তাঁকে দলে পাওয়ার ব্যাপারে আপনি আশাবাদী?
স্টিভ রোডস: না, এটা (অবসরের প্রসঙ্গে) মোটেও প্রভাব ফেলেনি। সংবাদমাধ্যম যেভাবে অনুসরণ করে দলকে, খেলোয়াড়েরা এতে অভ্যস্ত হয়ে গেছে। সংবাদমাধ্যমে বিপুল উন্মাদনা, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম আছে। ক্রিকেটাররা, দল এ ধরনের খবরে অভ্যস্ত। এটা মোটেও তাই প্রভাব ফেলছে না। বোর্ডের সঙ্গে কথা বলে সে সিদ্ধান্ত নেবে। সবার উচিত এটা তার ওপর ছেড়ে দেওয়া। হ্যাঁ, মিডিয়ার জন্য এটা অনেক বড় স্টোরি, তবুও তার প্রতি একটু সম্মান দেখানো উচিত। সে কী করবে আর করবে না—এ সিদ্ধান্ত তাকেই নিতে দিন।
আর শ্রীলঙ্কা সফর, হ্যাঁ, সে আমাদের নেতা। যদি সে শ্রীলঙ্কায় যায়, ভালো। যদি সে ভিন্ন কিছু চিন্তা করে, সেটিও ভালো। আমরা এগিয়ে যাব। এটাই জীবন। যদি সঙ্গে থাকে, তাহলে তো দারুণ। শ্রীলঙ্কায় ম্যাচ জেতার চেষ্টা করব। যদি না যায় তবুও আমাদের এগিয়ে যেতেই হবে।

সংবাদ সম্মেলন শেষ ভেবে সবাই যখন আসন ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন, রোডস সবাইকে বসতে বললেন। তাঁর কথা শেষ হয়নি! বাংলাদেশ কোচ আবার বললেন, ‘জানি আমার কথা দিয়ে আপনারা সংবাদ শিরোনাম করবেন। মাশরাফির শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে আমি বলতে চেয়েছি, সে যদি না যায়, আমরা এগিয়ে যাব, আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। এটা আরেকটু ব্যাখ্যা করে বলি। ম্যাশ না থাকলেও বাংলাদেশকে এগিয়ে যেতে হবে। সেটি এই টুর্নামেন্ট হোক বা এক বছর পরে হোক। একটা পর্যায়ে বাংলাদেশকে (তাঁকে ছাড়া) এগোতেই তো হবে। যেমনটা এগিয়েছে অন্য দেশগুলো। সব সময়ই ব্যাপারটা সহজ নয়। তার স্থান পূরণ করা কঠিন। তবে যেটা বললাম, আমরা এগিয়ে যাব।

This post was last modified on 04/07/2019 11:41 pm

ডেস্ক রিপোর্টার

একটি বাংলাদেশ - Ekti Bangladesh (ektibd.com) is a leading Online Newspaper & News Portal of Bangladesh. It covers Breaking News, Politics, National, International, Live Sports etc.

Leave a Comment

Recent Posts

জিঞ্জিরা প্রাসাদ – দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি জিঞ্জিরা প্রাসাদ কে ঘিরে। জিঞ্জিরা প্রাসাদ কোথায় অবস্থিত, ইতিহাস, কাঠামো, কেন যাবেন,… Read More

21/09/2020

মুসা খান মসজিদ – ঐতিহাসিক দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি মুসা খান মসজিদ কে ঘিরে। মুসা খান মসজিদ কোথায় অবস্থিত, ইতিহাস, কাঠামো,… Read More

20/09/2020

রিয়েলমি সিক্স আই ফোনের দাম ও স্পেসিফিকেশন

টেক-ট্রেন্ডসেটার ব্র্যান্ড রিয়েলমি 'আনলিশ দ্য পাওয়ার' ট্যাগলাইনে সিক্স সিরিজের নতুন স্মার্টফোন 'রিয়েলমি সিক্স আই' বাংলাদেশের… Read More

20/09/2020

গ্রীন ভিউ রিসোর্ট – দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি গ্রীন ভিউ রিসোর্ট কে ঘিরে। গ্রীন ভিউ রিসোর্ট কোথায় অবস্থিত, ইতিহাস, কাঠামো,… Read More

19/09/2020

রাজা হরিশচন্দ্রের ঢিবি – ঐতিহাসিক দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি রাজা হরিশচন্দ্রের ঢিবি কে ঘিরে। রাজা হরিশচন্দ্রের ঢিবি কোথায় অবস্থিত, ইতিহাস, কাঠামো,… Read More

18/09/2020

ভাষা শহীদ আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর – দর্শনীয় স্থান

আমাদের আজকের প্রতিবেদনটি ভাষা শহীদ আবুল বরকত স্মৃতি জাদুঘর ও সংগ্রহশালা কে ঘিরে। শহীদ আবুল… Read More

18/09/2020

This website uses cookies.