,


আগে খুঁজতে হবে মাশরাফির বিকল্প
আগে খুঁজতে হবে মাশরাফির বিকল্প

আগে খুঁজতে হবে মাশরাফির বিকল্প

ডেস্ক রিপোর্টারঃ এবারের বিশ্বকাপটা একেবারেই ভালো যায়নি বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার। অনেকেই তাঁর শেষ দেখে ফেলেছেন। তবে এ বিষয়ে কোচ স্টিভ রোডস কোনো মন্তব্য করেননি। তিনি মনে করেন, এটি পুরোপুরি মাশরাফির ব্যাপার। কিছুদিন আগেই মাশরাফি বিন মুর্তজা জানিয়েছিলেন, বিশ্বকাপের পরেও খেলবেন তিনি। এটা মাশরাফির নিজস্ব সিদ্ধান্ত। কিন্তু ক্যারিয়ারের শেষ বিশ্বকাপটা যে তিনি রাঙাতে পারেননি, এটা সত্যি। ৭ ম্যাচে মাঠে নেমে মাত্র ১ উইকেট—পরিসংখ্যানটা মাশরাফির মতো বোলারের সঙ্গে ঠিক যাচ্ছে না। এ নিয়ে সমালোচনাও কম হচ্ছে না। মাশরাফিকে একদিন না একদিন ঠিকই ‘বিদায়’ বলতে হবে—এই অমোঘ সত্যের মুখোমুখি দাঁড়িয়ে তাঁর বিকল্প খুঁজে বের করার ব্যাপারটাও কিন্তু সামনে এসে যায়। সে প্রসঙ্গ উঠল ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ শেষেও।

মাশরাফি প্রসঙ্গে কোচ স্টিভ রোডসের দিকে ছুটে গেছে প্রশ্ন। বাংলাদেশের ইংলিশ কোচ অবশ্য এ বিষয়ে সরাসরি কোনো মন্তব্য করেননি, ‘দুই সপ্তাহ ধরে এই আলোচনাটি চলছে। বিষয়টি নিয়ে কথা বলার জন্য বোর্ড ও মাশরাফি নিজেই আছে। আমি এই ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’

এরপরই বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের বাস্তবিক চিত্রটি তুলে ধরেছেন রোডস। মনে করিয়ে দিলেন মাশরাফির বিকল্প কোনো বোলার না পাওয়ার বিষয়টিও, ‘আমাদের ভালো একজন বোলার পেতে হবে। মাশরাফির জায়গা নেওয়ার মতো যার যথেষ্ট যোগ্যতা আছে। সবাই ভুলে যায় আমাদের হাতে অনেক লম্বা ও দ্রুতগতির বোলার নেই। আমরা টেস্ট ম্যাচ দিয়ে সেই বোলার খোঁজার চেষ্টা করছি। আমি নিশ্চিত, আমরা যে ধরনের বোলার চাইছি, তা খুঁজে বের করতে পারব।’

বিশ্বকাপে ৮ ম্যাচের ৭ ইনিংসে প্রতিপক্ষের ৭০ উইকেটের বাংলাদেশ তুলে নিতে পেরেছে ৫১টি। এর মধ্যে ১৬টি করে ভাগাভাগি করে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান আর সাইফউদ্দিন। মেহেদী হাসান মিরাজ পেয়েছেন ৫টি। মোসাদ্দেক ৩টি। এমনকি খণ্ডকালীন বোলার সৌম্য সরকারও তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট। কার্ডিফে ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারস্টোকে ফিরিয়ে ব্রেক থ্রু দিয়েছিলেন মাশরাফি। ৭ ম্যাচে যে ২৯৪টি বল করে ওই একটি উইকেটই মাশরাফির প্রাপ্তি। রান দিয়েছেন ৩১৫।

রোডস অবশ্য চান মাশরাফি যত দিন খেলেন, বিশ্বকাপ খারাপ সময় থেকে নিজেকে বের করেই খেলে যাবেন, ‘আমি নিশ্চিত, মাশরাফি তার পারফরমেন্স নিয়ে ভাববে এবং এখান থেকে বের হয়ে আসার চেষ্টা করবে। খারাপ সময় থেকে বের হয়ে আসার জন্য সে সব রকমের চেষ্টায় করছে। প্রতিটি বলের জন্যই সে তার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এই বিভাগের আরো

%d bloggers like this: